সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, সকাল ০৮:০৮

মাটির নিচে পুরো একটি গ্রাম, ছবিতে দেখুন

January 25, 2018 - 04:10 pm. Hits: 1275

চীনের এক রহস্যময় গ্রাম, যেখানে সব বাড়িই রয়েছে মাটির তলায়। চীনের হেনান প্রদেশের সানমেনেক্সিয়ায় দেখা মিলবে অদ্ভুত এই গ্রামের। এখানে প্রায় ২০০ বছর ধরে মাটির তলাতেই বাড়ি তৈরি করে বসবাস করছেন কয়েক হাজার মানুষ।

চীনের এক রহস্যময় গ্রাম, যেখানে সব বাড়িই রয়েছে মাটির তলায়। চীনের হেনান প্রদেশের সানমেনেক্সিয়ায় দেখা মিলবে অদ্ভুত এই গ্রামের। এখানে প্রায় ২০০ বছর ধরে মাটির তলাতেই বাড়ি তৈরি করে বসবাস করছেন কয়েক হাজার মানুষ।

এই এলাকায় মাটির তলায় এমন অন্তত হাজার দশেক ঘরের সন্ধান মিলেছে। এই ধরনের ঘরগুলিকে বলা হয় ‘ইয়ায়োডং’। এই চিনা শব্দের অর্থ হল ‘গুহা ঘর’। হেনান প্রদেশের এই গুহা ঘরগুলিতে এখনও হাজার তিনেক মানুষ বসবাস করেন।

এই এলাকায় মাটির তলায় এমন অন্তত হাজার দশেক ঘরের সন্ধান মিলেছে। এই ধরনের ঘরগুলিকে বলা হয় ‘ইয়ায়োডং’। এই চিনা শব্দের অর্থ হল ‘গুহা ঘর’। হেনান প্রদেশের এই গুহা ঘরগুলিতে এখনও হাজার তিনেক মানুষ বসবাস করেন।

জানা গিয়েছে, এই বাসিন্দাদের অন্তত ছয় প্রজন্ম এখানে বসবাস করছেন। এই ঘরগুলি মাটি থেকে ২২-২৩ ফুট গভীরে তৈরি। এগুলি লম্বায় ৩৩ থেকে ৩৯ ফুট পর্যন্ত হয়।

জানা গিয়েছে, এই বাসিন্দাদের অন্তত ছয় প্রজন্ম এখানে বসবাস করছেন। এই ঘরগুলি মাটি থেকে ২২-২৩ ফুট গভীরে তৈরি। এগুলি লম্বায় ৩৩ থেকে ৩৯ ফুট পর্যন্ত হয়।

 মাটির তলায় তৈরি এই ঘরগুলিতে তাপমাত্রা শীতকালে ১০ ডিগ্রি আর গ্রীষ্মে ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি থাকে না। ঐতিহাসিকদের মতে, হেনান প্রদেশের এই গুহা ঘরগুলিতে মানুষের বসবাস ২০০ বছরের হলেও চিনের পার্বত্য এলাকায় ৪০০০ বছর আগে, ব্রোঞ্জ যুগে এই ধরনের বাড়ি তৈরি

মাটির তলায় তৈরি এই ঘরগুলিতে তাপমাত্রা শীতকালে ১০ ডিগ্রি আর গ্রীষ্মে ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি থাকে না। ঐতিহাসিকদের মতে, হেনান প্রদেশের এই গুহা ঘরগুলিতে মানুষের বসবাস ২০০ বছরের হলেও চিনের পার্বত্য এলাকায় ৪০০০ বছর আগে, ব্রোঞ্জ যুগে এই ধরনের বাড়ি তৈরি

বর্তমানে এইসব গুহা ঘরগুলিতে বিদ্যুত সংযোগ-সহ সব আধুনিক ব্যবস্থা রয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, ভূমিকম্পেও ক্ষতিগ্রস্ত হয় না এই ঘরগুলি। ২০১১ সাল থেকে এই গ্রামটির সংরক্ষণের ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন।

বর্তমানে এইসব গুহা ঘরগুলিতে বিদ্যুত সংযোগ-সহ সব আধুনিক ব্যবস্থা রয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, ভূমিকম্পেও ক্ষতিগ্রস্ত হয় না এই ঘরগুলি। ২০১১ সাল থেকে এই গ্রামটির সংরক্ষণের ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন।

বর্তমানে এই ঘরগুলি পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। ২১ ইউরো (প্রায় ১৬২১ টাকা) দিলেই এক মাসের জন্য ভাড়ায় মিলতে পারে এখানকার একটি ঘর। আর ৩২ হাজার ইউরোতে (প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা) কিনেও নিতে পারেন এই ঘরগুলি। সূত্র: আনন্দবাজার

বর্তমানে এই ঘরগুলি পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। ২১ ইউরো (প্রায় ১৬২১ টাকা) দিলেই এক মাসের জন্য ভাড়ায় মিলতে পারে এখানকার একটি ঘর। আর ৩২ হাজার ইউরোতে (প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা) কিনেও নিতে পারেন এই ঘরগুলি। সূত্র: আনন্দবাজার

আরও

মাটির নিচে পুরো একটি গ্রাম, ছবিতে দেখুন মাটির নিচে পুরো একটি গ্রাম, ছবিতে দেখুন
বিয়ের পিঁড়িতে বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা, বিয়ের নির্বাচিত কিছু ছবি বিয়ের পিঁড়িতে বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা, বিয়ের নির্বাচিত কিছু ছবি
ডিসেম্বরে ন্যাশনাল জিওগ্রাফির সেরা পাঁচ ছবি ডিসেম্বরে ন্যাশনাল জিওগ্রাফির সেরা পাঁচ ছবি
মানুষীর যে ২০টি ছবি দেখলেই বুঝতে পারবেন কেন বিশ্বসুন্দরী মানুষীর যে ২০টি ছবি দেখলেই বুঝতে পারবেন কেন বিশ্বসুন্দরী
জলবায়ু সম্মেলন জলবায়ু সম্মেলন
ছবিতে দেখুন 'পোস্টাল মিউজিয়াম' ছবিতে দেখুন 'পোস্টাল মিউজিয়াম'
ক্যানভাসে জলরঙের ‘জলকেলি’ ক্যানভাসে জলরঙের ‘জলকেলি’
আধুনিকতার ভিড়ে বিলুপ্তির পথে ঐতিহ্যবাহী শখের মৃৎশিল্প আধুনিকতার ভিড়ে বিলুপ্তির পথে ঐতিহ্যবাহী শখের মৃৎশিল্প
ছবিতে হলি আর্টিজান স্মরণ ছবিতে হলি আর্টিজান স্মরণ
লালন মেলা লালন মেলা
ছবিতে দেখুন গাবতলী গরুরহাটের ভয়াবহ আগুনে অবলা প্রাণীদের পুড়ে মরার লোমহর্ষক চিত্র ছবিতে দেখুন গাবতলী গরুরহাটের ভয়াবহ আগুনে অবলা প্রাণীদের পুড়ে মরার লোমহর্ষক চিত্র
চারুকলায় চলছে প্রাচ্য চিত্রকলা প্রদর্শনী চারুকলায় চলছে প্রাচ্য চিত্রকলা প্রদর্শনী
ছবিতে জাতীয় ফল প্রদর্শনী ছবিতে জাতীয় ফল প্রদর্শনী
কালের সাক্ষী হয়ে টিকে থাকা প্রাচীনতম বেদে সম্প্রদায়ের কয়েকটি বেদে পরিবারের যাযাবর জীবনের দুর্বিষহ অবস্থা কালের সাক্ষী হয়ে টিকে থাকা প্রাচীনতম বেদে সম্প্রদায়ের কয়েকটি বেদে পরিবারের যাযাবর জীবনের দুর্বিষহ অবস্থা
বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে চলছে ‘বৈশাখী মেলা’। মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে ছবি তুলেছেন শারীফ অনির্বাণ। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে চলছে ‘বৈশাখী মেলা’। মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে ছবি তুলেছেন শারীফ অনির্বাণ।
ঢাকার মালিবাগে ফ্লাইওভার নির্মাণের ফলে দুর্ভোগে পড়েছে  নগরবাসী।পরিকল্পিত ভাবে না করার কারণে মৃত্যুর ঘটনাও  ঘটছে। এ পথ দিয়ে চলতে পথচারীদের দুর্ভোগের শেষ নেই।  যেকোন সময় ঘটে যেতে পারে বড় দুর্ঘটনা। ঢাকার মালিবাগে ফ্লাইওভার নির্মাণের ফলে দুর্ভোগে পড়েছে নগরবাসী।পরিকল্পিত ভাবে না করার কারণে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটছে। এ পথ দিয়ে চলতে পথচারীদের দুর্ভোগের শেষ নেই। যেকোন সময় ঘটে যেতে পারে বড় দুর্ঘটনা।
সরকারি নির্দেশ অমান্য করে শিশুদের দিয়ে চালানো হচ্ছে  লেগুনা।আবার চালানোর সুযোগ পাচ্ছে বলেই সেচ্ছায় তারা লেগুনা  চালাচ্ছেন। এভাবে বেআইনি লেগুনা চালিয়ে বেড়ে উঠছে আগামীর  গাড়ি চালক সরকারি নির্দেশ অমান্য করে শিশুদের দিয়ে চালানো হচ্ছে লেগুনা।আবার চালানোর সুযোগ পাচ্ছে বলেই সেচ্ছায় তারা লেগুনা চালাচ্ছেন। এভাবে বেআইনি লেগুনা চালিয়ে বেড়ে উঠছে আগামীর গাড়ি চালক
সিঙ্গাপুরের জুয়েল চাঙ্গি বিমানবন্দর দেখে মুগ্ধ হবে সারা বিশ্ববাসী। এটি বিশ্বের অন্যান্য বিমানবন্দরগুলোর মধ্যে অন্যতম আকর্ষণীয় বিমানবন্দর হিসেবে পরিচিত। জার্মানভিত্তিক বাংলা পোর্টাল 'ডয়চে ভেলে'তে প্রকাশিত ছবি ও তথ্য নিয়ে একটি ফটোস্টোরি তুলে ধরা হয়েছে। সিঙ্গাপুরের জুয়েল চাঙ্গি বিমানবন্দর দেখে মুগ্ধ হবে সারা বিশ্ববাসী। এটি বিশ্বের অন্যান্য বিমানবন্দরগুলোর মধ্যে অন্যতম আকর্ষণীয় বিমানবন্দর হিসেবে পরিচিত। জার্মানভিত্তিক বাংলা পোর্টাল 'ডয়চে ভেলে'তে প্রকাশিত ছবি ও তথ্য নিয়ে একটি ফটোস্টোরি তুলে ধরা হয়েছে।
পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও কাজ করে চলেছেন সমানতালে।যদিও  তারা পুরুষের তুলনায় সমান মজুরি পান না।তারপর কাজ করেই  যেন তৃপ্ত তারা। পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও কাজ করে চলেছেন সমানতালে।যদিও তারা পুরুষের তুলনায় সমান মজুরি পান না।তারপর কাজ করেই যেন তৃপ্ত তারা।
চারুকলায় চলছে শিল্পী রাশিদা আক্তারের একক চিত্রকর্ম প্রদর্শনী 'নবসৃজনের আলোয়' চারুকলায় চলছে শিল্পী রাশিদা আক্তারের একক চিত্রকর্ম প্রদর্শনী 'নবসৃজনের আলোয়'