শুক্রবার ১৯ জানুয়ারি, ২০১৮, সকাল ০৯:৫৭

অতুলপ্রসাদ সেনের প্রয়াণ

Published : 2017-06-09 21:58:00
অতুলপ্রসাদ সেন ছিলেন ব্রিটিশ ভারতবর্ষে উনবিংশ শতাব্দীতে আবির্ভূত একজন বিশিষ্ট বাঙালি গীতিকার, সুরকার ও গায়ক। ১৮৭১ সালের ২০ অক্টোবর তাঁর জন্ম। তাঁদের আদিনিবাস ছিল ফরিদপুর জেলার দক্ষিণ বিক্রমপুরের মগর গ্রামে। বাল্যকালে পিতৃহীন হয়ে অতুলপ্রসাদ ভগবদ্ভক্ত, সুকণ্ঠ গায়ক ও ভক্তিগীতিরচয়িতা মাতামহ কালীনারায়ণ গুপ্তের আশ্রয়ে প্রতিপালিত হন। পরবর্তী সময়ে মাতামহের এসব গুণ তাঁর মাঝেও সঞ্চালিত হয়। অতুলপ্রসাদ ১৮৯০ সালে প্রবেশিকা পাসের পর কিছুদিন কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজে অধ্যয়ন করেন।
তিনি একজন বিশিষ্ট সংগীতবিদও ছিলেন। তাঁর রচিত গানগুলোর মূল উপজীব্য বিষয় ছিল দেশপ্রেম, ভক্তি ও প্রেম। তাঁর জীবনের দুঃখ ও যন্ত্রণাগুলো তাঁর গানের ভাষায় বাঙ্ময় মূর্তি ধারণ করেছিল; বেদনা অতুলপ্রসাদের গানের প্রধান অবলম্বন। ১৮৯০ সালে প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে তিনি কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজে ভর্তি হন। পরে লন্ডনে গিয়ে আইন শিক্ষা করেন। তিনি ছিলেন একাধারে কবি, গীতিকার ও গায়ক।
১৯০০ সালে স্কটল্যান্ডে গিয়ে মামাতো বোন হেমকুসুমকে বিয়ে করেন অতুলপ্রসাদ। তাদেও সংসারে দুটি পুত্রসন্তানের জন্ম হয়, যার মধ্য একজনের অকালমৃত্যু ঘটে। ১৯০২ সালে তিনি জীবিত সন্তানকে নিয়ে ভারতে তথা কলকাতায় প্রত্যাবর্তন করেন। এ সময় আত্মীয়স্বজন কেউ তাঁদের সাহায্য করতে এগিয়ে আসেননি।
১৯০২ থেকে ১৯৩৪ সাল পর্যন্ত অতুলপ্রসাদ আইন ব্যবসা উপলক্ষে লক্ষেৗতে অতিবাহিত করেন। তিনি ১৯৪৮ সালের ১০ জুন মারা যান।