শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, রাত ০৪:২৬

'পটুয়াখালীর বাউফল থানায় নির্যাতনে সার্কেল এএসপি জড়িত'

Published : 2017-03-19 14:10:00
পটুয়াখালীর বাউফল থানা হেফাজতে হাফিজুর রহমান বিজয় নামে এক ব্যক্তিকে নির্যাতনের ঘটনায় সার্কেল এএসপি সাইফুল ইসলাম জড়িত উল্লেখ করে হাইকোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে। রোববার(১৯ মার্চ) সকালে বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে পুলিশ মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) দেওয়া এ প্রতিবেদন দাখিল করা হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, অনুসন্ধানকালে প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্ত ভিকটিমের চিকিৎসা সনদপত্র, সাক্ষীদের জবানবন্দি ও রেকর্ডপত্র পর্যালোচনায় দেখা যায়, পটুয়াখালীর বাউফল থানার ২১ নম্বর মামলার এজাহারভুক্ত আসামি কে এম হাফিজুর রহমান বিজয়কে ১২ ফেব্রুয়ারি মামলার তদন্তকারী অফিসার এসআই ফেরদৌস আলম গ্রেফতার করে থানাহাজতে নিয়ে যান। রাত সাড়ে ১২টায় থানাহাজত থেকে বের করে বিজয়কে ওসির কক্ষে নিয়ে বেধড়ক মারপিটসহ শারীরিক নির্যাতন করে।

এর আগে ২৭ ফেব্রুয়ারি এএসপি সাইফুল ইসলামকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। তার আগে ঘটনার বিষয়ে আইজিপিকে আদালতে একটি প্রতিবেদন দিতে বলা হয়। সে অনুযায়ী রোববার আইজিপির পক্ষ থেকে আদালতে এ প্রতিবেদন দাখিল করা হয়।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি একটি দৈনিক পত্রিকায় এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। বিজয়ের মা জোসনা বেগমের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ১৩ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যার দিকে একটি মামলায় বিজয়কে এসআই ফেরদৌস গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যান। ওই দিন রাত ১২টার পর তাকে থানাহাজত থেকে বের করে ওসির রুমে এনে শারীরিক নির্যাতন করা হয়। রাত দেড়টা পর্যন্ত কয়েক দফা তার ছেলের ওপর নির্যাতন চালানো হয়। লাঠি দিয়ে তার ছেলেকে পেটানো হয়।

সর্বশেষ সংবাদ