রবিবার ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, সকাল ০৮:২৫

বিশ্বের শীর্ষ ব্যয়বহুল ৫টি গাড়ি

Published : 2017-06-08 18:19:00, Updated : 2017-06-08 18:49:52
অটোমোবাইল ডেস্ক : ধনী-গরিব সামর্থ্যভেদে গাড়ি বিলাসিতা একটি লক্ষণীয় বিষয়। এটা কারও প্রয়োজনবশত, কারও কারও নেশা, কারও আবার শখ। প্রয়োজনীয়তা, শখ বা নেশা যেটাই হোক, গাড়ির প্রতি দুর্বলতা সেই যুগ যুগ আগে থেকেই। কেউ কেউ মোটা অঙ্কের অর্থ খরচ করে সংগ্রহে রাখে নিজের শখের গাড়িটি।

পৃথিবীতে এমন সব কিছু গাড়ি রয়েছে, যেগুলোর গতি যেমন দানবীয়, অন্যান্য ব্যয়ও তেমন প্রচুর। বর্তমান সময়ের শীর্ষ ব্যয়বহুল ৫টি গাড়ি সম্পর্কে তুলে ধরা হল:

 

 

 

 

১. কোয়েনিগসেগ সিসিএক্সআর ট্রেভিটা
৪.৮৬ মিলিয়ন ডলারের এ গাড়িটি মাত্র তিন পিস তৈরি হয়েছে। একটির ক্রেতা মার্কিন বক্সার ফ্লয়েড মেওয়েদার জুনিয়র। এটি কার্বন ফাইবারে তৈরি হলেও অন্যান্য কার্বন ফাইবার গাড়ির মতো ডার্ক রংয়ের নয়। এর বডিতে রয়েছে উজ্জ্বল হীরার মতো রং।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

২. ল্যাম্বার্গিনি ভেনিনো রোডস্টার
সাড়ে চার মিলিয়ন ডলার মূল্যের ল্যাম্বরগিনি ভেনিনো রোডস্টার গাড়িটিতে রয়েছে ৭৪০ হর্সপাওয়ার ইঞ্জিন। তবে এত খরচ করলেও গাড়িটির কোনো ছাদ পাবেন না আপনি! অবশ্য এ গাড়িটির ক্রেতারা এ জন্য মোটেই অনাগ্রহী নন। গাড়িটি যেমন ব্যয়বহুল তেমন দৃষ্টিনন্দনও বটে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

৩. লিমিটেড এডিশন বোগাত্তি ভ্যারন
৩.৪ মিলিয়ন মূল্যমানের এই গাড়িটি শীর্ষ ব্যয়বহুল তালিকার তিন নম্বরে রয়েছে।  জার্মান প্রযুক্তির তৈরি এই গাড়িটির ইঞ্জিন ১২০০ হর্সপাওয়ার ক্ষমতাসম্পন্ন। দৃষ্টিনন্দন এই বিলাসবহুল গাড়িটি কার্বন-ফাইবার বডি দিয়ে নির্মিত। রয়েছে আধুনিক এলইডি লাইটিংস। ঘন্টায় ২৫৪ কিলোমিটার দৌড়াতে সক্ষম বোগাত্তি ভ্যারন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

৪. ম্যাকলরেন পি১ জিটিআর
৩.১ মিলিয়ন ডলার খরচ করে একটি রেসিং কার কিনতে চাইলে ম্যাকলরেন পি১ জিটিআর হতে পারে আদর্শ। এ গাড়িটি ১৯৯৫ এফ১ জিটিআর লে ম্যানস বিজয়ী গাড়ির হুবহু রং করা হয়েছে। এতে রয়েছে ৯৮৬ হর্সপাওয়ার টার্বোচার্জড ভি৮ ইঞ্জিন ও অনবোর্ড ইলেকট্রিক মোটর।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

৫. ফেরারি এক্সএক্স কে
ফেরারির অসাধারণ ট্র্র্যাক কার হিসেবে এ তিন মিলিয়ন ডলার মূল্যের গাড়িটি অন্যতম জনপ্রিয় মডেল। এ গাড়িটি হাইব্রিড হওয়ায় এতে বৈদ্যুতিক ও পেট্রল উভয় ইঞ্জিনই রয়েছে। গাড়িটির ইঞ্জিনের ক্ষমতা ১০৩৬ হর্সপাওয়ার। তবে আপনি চাইলেই এখন এ গাড়িটি কিনতে পারবেন না। কারণ মাত্র ৪০টি এ ধরনের গাড়ি নির্মিত হয়েছে এবং তার সবই বিক্রি হয়ে গিয়েছে।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

ছবি : অটো ব্লগ ও মটর ট্রেন্ড।