শনিবার ২০ জানুয়ারি, ২০১৮, রাত ০৮:৪৮

ভারত মিলিমিটারের ভগ্নাংশও বাংলাদেশকে ছাড় দেয় না: রিজভী

Published : 2017-03-17 15:48:00

অনলাইন প্রতিবেদক : ভারতের সঙ্গে চুক্তির খবর শুনে মানুষ বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে উল্লেখ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বাংলাদেশের সরকার ভারতকে উজাড় করে দেয়। কিন্তু ভারত মিলিমিটারের ভগ্নাংশও বাংলাদেশকে ছাড় দেয় না। ভারত কর্তৃক প্রস্তাবিত ২৫ বছর মেয়াদী প্রতিরক্ষা চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশে তাদের মিলিটারী হার্ডওয়্যার বিক্রি করতে চায়।

তিনি বলেন, এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হলে এদেশের আপামর জনসাধারণ শরীরের রক্ত ঢেলে দিয়ে অমিত বিক্রমে তা প্রতিহত করবে।

শুক্রবার (১৭ মার্চ) রাজধানী নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘ভারতের একজন সাবেক সেনাপ্রধান একসময় বলেছিলেন-ভারতের সামরিক অস্ত্রসম্ভার সেকেলে, আধুনিক প্রযুক্তি থেকে অনেক দুরে, এগুলো মানসম্মত নয়’।

রিজভী বলেন, ভারত নিজেই হচ্ছে সামরিক সরঞ্জাম আমদানিকারক একটি দেশ। সেক্ষেত্রে ভারত কী ধরণের সমরাস্ত্র বাংলাদেশে রপ্তানী করবে, সেটিই এখন বড় প্রশ্ন।

আসলে এর পেছনে যে অন্য উদ্দেশ্য আছে, তা বাংলাদেশের মানুষ ভালভাবেই উপলব্ধি করে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

বিএনপির এই সিনিয়র নেতা বলেন, প্রতিরক্ষা চুক্তির বিষয়ে ভারতের আগ্রহ এবং বাংলাদেশ সরকার চায় সমঝোতা স্মারক সম্পাদন করবে। সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হলেও তা চুক্তি সম্পাদনের পথে একটা বাধ্যতা তৈরী করবে। সুতরাং বাংলাদেশ সরকারের জন্য সমঝোতা স্মারকে সাক্ষর করাও হবে বিপজ্জনক।

কোনো চুক্তিই গোপন রাখা হবে না- আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এ বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ভারতের সাথে অতীতে দেশবিরোধী ট্রানজিট এবং করিডোর ছাড়াও আপনারা আরো গোপনীয় ৫০টি চুক্তি সম্পাদন করেছিলেন। যেটি আজও জনগণ জানতে পারেনি।

গুম, খুন বিচারবহির্ভূত হত্যার পাশাপাশি নানা কল্পকাহিনী রচনা করে জনগণের দৃষ্টিকে ভিন্ন দিকে সরিয়ে রাখা তাদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন।