বৃহস্পতিবার ১৮ জানুয়ারি, ২০১৮, ভোর ০৬:১০

এফবিসিসিআই নির্বাচনে যারা বিজয়ী হলেন

Published : 2017-05-15 10:47:00, Updated : 2017-05-15 11:07:54

অনলাইন প্রতবিদেক : এফবিসিসিআই নির্বাচনে মহিউদ্দিন প্যানেল জয়ী হয়েছেন।নির্বাচনে পরিচালক পদে সম্মিলিত গণতান্ত্রিক পরিষদ নিরঙ্কুশ বিজয় লাভ করে।প্রকাশিত ফলাফলে পরিচালক পদে সম্মিলিত গণতান্ত্রিক পরিষদ ১৬টি অন্যদিকে ব্যবসায়িক ঐক্য ফোরাম দুটিতে জয়লাভ করেছেন ।

রোববার (১৪ মে) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দেশের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের নতুন নেতৃত্ব বেছে নিতে ভোট দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা । সকাল নয়টা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত সম্মেলন কেন্দ্রের সেলিব্রেটি হলে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে মোট এক হাজার ৮৯৮ জন ভোটারের মধ্যে ১ হাজার ৬৬৮ জন ভোট দেয় বলে জানা গেছে। এরপর রাতেই ঘোষণা করা হয় ফলাফল।

ঐক্য ফোরাম প্যানেলে জয়ী দুইজন হলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর (৯৮৪ ভোট) ও কাজী ইরতেজা হাসান (১০০১)।
সম্মিলিত গণতান্ত্রিক পরিষদের জয়ীরা হলেন- খন্দকার রুহুল আমিন (১২০৬ ভোট), আবু মোতালেব (১১৯৫ ভোট), মির নাজিম উদ্দিন আহমেদ (১১৪৫ ভোট), মোহাম্মাদ শফিকুল ইসলাম ভরসা (১১৪১ ভোট), মোহাম্মদ মুনতাকিম আশরাফ (১১০৫ ভোট), শমী কায়সার (১০৭৭ ভোট), রাশেদুল হাসান চৌধুরী রনি (১০৫২ ভোট), মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ ডন (১০৩৪ ভোট), শাফকাতুল হায়দার (১০১৭ ভোট), আমজাদ হুসাইন (৯৭৭ ভোট), নাজিমুদ্দিন রাজেশ (৯৭৬ ভোট), হাফিজ হারুন (৯৭৪ ভোট), এসএম জাহাঙ্গীর হোসাইন (৯৬৫ ভোট), আরটিএন এমডি আবুল আয়েস খান (৯৬২ ভোট), মোহাম্মদ আবু নাসিরি (৯২৮ ভোট), খন্দকার মঞ্জুর রহমান জুয়েল (৯২৩ ভোট), আবদুল হক (৯০৭ ভোট)।
নির্বাচন বোর্ডের প্রধান করা হয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আলী আশরাফকে। আর নির্বাচনে আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএমএ) সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আল আমিন।
এ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন পোশাক ব্যবসায়ী সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনের নেতৃত্বাধীন ব্যবসায়ী ঐক্য ফোরাম এবং বায়িং হাউস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কাজী ইফতেখার হোসেন বাবুলর ব্যবসায়ী ঐক্য ফোরাম। বাবলু ব্যবসায়ী ঐক্য ফোরামের প্রধান সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছেন।
এফবিসিসিআইয়ের ৬০টি পরিচালক পদের মধ্যে চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপ থেকে ১২ জন করে মোট ২৪ জন পরিচালক পরোক্ষভাবে মনোনীত হন। বাকি ৩৬টি পদে সরাসরি নির্বাচনের নিয়ম রয়েছে সংগঠনের গঠনতন্ত্রে। এর মধ্যে চেম্বার গ্রুপে ১৮টি ও অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের ১৮টি পদ রয়েছে।
কিন্তু এবার সম্মিলিত গণতান্ত্রিক পরিষদ থেকে চেম্বার গ্রুপের সব প্রার্থী ভোট থেকে সরে যাওয়ায় সম্মিলিত গণতান্ত্রিক পরিষদের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। ফলে আজ ভোট হয়েছে কেবল অ্যাসোসিয়েশন গ্রুপের ১৮টি পদে, যাতে উভয় গ্রুপ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।
নির্বাচনে এই ১৮টি পদের জন্য দুটি প্যানেলের ব্যানারে ৩৬ প্রার্থী লড়াই করেন। সম্মিলিত গণতান্ত্রিক পরিষদ থেকে নির্বাচনে অংশ নেয়া ১৮ জনের মধ্যে ১১ জনই বর্তমান মেয়াদের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ২০১৫ সালের ২৩ মে এফবিসিসিআইয়ের সর্বশেষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ৩১ মে আবদুল মাতলুব আহমাদের নেতৃত্বাধীন সেই কমিটি দায়িত্ব নেয়।
এফবিসিসিআই হলো পণ্যভিত্তিক ৩৮০টি ব্যবসায়ী সংগঠন এবং ৮১টি চেম্বারের যৌথ সংগঠন। এসব ব্যবসায়ী সংগঠনের মনোনীত সদস্যরা ভোট দিয়ে এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক নির্বাচন করেন। অবশ্য ১২টি করে চেম্বার ও অ্যাসোসিয়েশনের একজন করে প্রতিনিধি মনোনীত পরিচালক হন। পরিচালকেরা ভোট দিয়ে সভাপতি ও দুইজন সহ-সভাপতি নির্বাচন করেন।