শুক্রবার ১৯ জানুয়ারি, ২০১৮, সকাল ০৭:৫০

খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার আদালত পরিবর্তনের নির্দেশ

Published : 2017-05-14 23:33:00
নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য আবারও আদালত পরিবর্তনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল বিচারপতি মো. শওকত হোসেন ও বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এজে মোহাম্মদ আলী। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী জাকির হোসেন ভূঁইয়া ও ফারহানা শারাফাত। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন কৌঁসুলি খুরশীদ আলম খান। আইনজীবী জাকির হোসেন ভূঁইয়া জানান, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম চলছে ঢাকা মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ কামরুল হোসেন মোল্লার আদালতে। বিচারক কামরুল হোসেন মোল্লা এক সময় দুদকের আইন শাখার পরিচালক ছিলেন। তখন তিনি খালেদা জিয়ার মামলাটি দেখভাল করেছিলেন। এ জন্য গত ১৩ এপ্রিল বিচারক কামরুল হোসেন মোল্লার কাছে অনাস্থার আবেদন করলে তিনি তা নাকচ করে দেন। সেই নামঞ্জুর আদেশের বিরুদ্ধে ২৬ এপ্রিল হাইকোর্টে আবেদন করেন খালেদা জিয়া। গতকাল হাইকোর্ট আদালত বদলের নির্দেশ দেন। তবে কোন আদালতে মামলাটি পাঠানো হবে, তা এখনও জানা যায়নি।
গত ৮ মার্চ হাইকোর্ট ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমদ জমাদারের আদালত থেকে মামলাটি বদলির নির্দেশ দেন। এরপর মামলাটি ওই আদালত থেকে স্থানান্তর করে বকশীবাজার এলাকায় স্থাপিত ঢাকা মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতে পাঠানো হয়।
জানা যায়, ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার টাকার বেশি আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৮ সালে রাজধানীর রমনা থানায় মামলাটি করে দুদক।
এদিকে রাজধানীর দারুস সালাম থানায় খালেদা জিয়ার দুই মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ চার সপ্তাহের জন্য মুলতবি করেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত। গতকাল চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর এ আদেশ দেন। ফলে দুই মামলার কার্যক্রম আপাতত স্থগিতই থাকছে বলে জানিয়েছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।

 

আরও খবর