সোমবার ২২ জানুয়ারি, ২০১৮, রাত ১০:৩০

বিবিসি প্রতিবেদন: বাংলাদেশে বাড়ছে ইলিশ মিয়ানমারে কমছে

Published : 2017-05-12 23:33:00
নিজস্ব প্রতিবেদক: জনপ্রিয় স্বাদের ইলিশ মাছের উত্পাদন বাংলাদেশে বাড়লেও কমছে মিয়ানমারে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ইলিশ রক্ষায় বাংলাদেশ যে ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে মিয়ানমার সে ধরনের পদক্ষেপ নিতে পারেনি। ফলে দেশটিকে ইলিশের উত্পাদন কমতে শুরু করেছে। বিশ্বে ইলিশ ধরার পড়ার প্রধান তিনটির দেশের মধ্যে বাংলাদেশ, ভারত ও মিয়ানমার অন্যতম।
প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের মতো মিয়ানমারেও প্রজন্ম প্রজন্ম ধরে ইলিশ মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করেন বহু জেলে। কিন্তু বিবিসি বার্মিজ বিভাগের কো কো অং তার এক অনুসন্ধানী রিপোর্টে বলছেন, নিয়ন্ত্রণহীন মাছ শিকার এবং সরু জালের ব্যবহারে হুমকিতে পড়েছে ইরাবতী নদীর ইলিশ। বহুদিন ধরে মিয়ানমারের ইরাবতী নদীতে ইলিশ মাছ ধরে জীবনধারণ করেন ৬৫ বছরের উকাওক টিন। বিবিসিকে তিনি বলেন, আমার বাবা ইলিশ ধরত, আমিও ধরি। সে সময় অনেক মাছ পেতাম, বড় বড় ইলিশ পেতাম। এখনও আমি এবং আমার ছেলেরা ইলিশ ধরতে যাই। কিন্তু মাছ খুব কম।
আর যাওবা পাই সেগুলো ছোট ছোট। এফএও’র এক হিসাবে বিশ্বের মোট ইলিশের ৬০ ভাগ ধরা পড়ে বাংলাদেশে। আর মিয়ানমারে ১৫-২০ ভাগ। এক সময় ইলিশ ছিল মিয়ানমারের মাছ রফতানির শীর্ষে। কিন্তু এখন তা ইতিহাস।
সাগর থেকে ডিম পাড়তে নদীতে ঢোকে ইলিশ। কিন্তু বাণিজ্যিক মাছ ধরার ট্রলারগুলো যেভাবে নতুন ধরনের সব জাল দিয়ে সাগরের একেবারে তল থেকে মাছ ছেঁকে আনছে তাতে ছোট-বড় সব মাছ উঠে আসছে।
গবেষকরা বলছেন, আড়াই সেন্টিমিটারের ছোট ছিদ্রের জাল ব্যবহার হচ্ছে দেদার, যদিও আইন অনুযায়ী সেই ছিদ্র অন্তত ১০ সেমি হতে হবে।
আর এ কারণে ইলিশ মাছ সাগর থেকে নদীতে ঢোকারই সুযোগ পাচ্ছে না। এখন যা পাওয়া যায় তার গড় ওজন ৩০০ থেকে ৫০০ গ্রাম, অথচ এক সময় দুই-তিন কেজি ওজনেরও মাছ হরহামেশা ধরা পড়ত।
দারিদ্র্যের কথা বিবেচনা করে ডিম পাড়ার মৌসুমে মাছ ধরার বিধিনিষেধ প্রয়োগ করে না মিয়ানমার সরকার আন্তর্জাতিক সংস্থা ওয়ার্ল্ড ফিশের মাইকেল আকেসটার বলছেন, কত ছোট মাছ ধরা যাবে সে ব্যাপারে (মিয়ানমারে) কোনো বিধিনিষেধ নেই। তার ফলে বাচ্চা ইলিশও ধরা হচ্ছে।
বাংলাদেশের মতো মিয়ানমারেও ডিমপাড়ার সময় (মে থেকে জুলাই) নদীতে ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ। কিন্তু বাংলাদেশে যেভাবে তা প্রয়োগ করা হচ্ছে, দারিদ্র্যের কথা বিবেচনা মিয়ানমার সরকার তা প্রয়োগ করে না। দেশটির সরকারি পরিসংখ্যান বলছে সাগরে ধরা পড়া ইলিশের পরিমাণ গত বছর বেড়েছে। কিন্তু সেগুলোর অধিকাংশই ছোট সাইজের। যত বড় হওয়ার কথা, তার অর্ধেক।