শনিবার ২০ জানুয়ারি, ২০১৮, সন্ধ্যা ০৭:২৩

ঝিনাইদহে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা নিহত

Published : 2017-03-15 19:47:00
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মনোহরপুর গ্রামে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে বিপুল মণ্ডল (২৩) নামে যুবলীগের এক নেতা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও চারজন। গুরুতর আহত ছাত্রলীগ কর্মী জাহাঙ্গীরকে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টায় মনোহরপুর গ্রামের হাটখোলা এলাকার কবরস্থানের পাশে ঘটনাটি ঘটে। নিহত বিপুল মনোহরপুর গ্রামের ফজলু মণ্ডলের ছেলে।

কালীগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার ইমরান আলম জানান, কালীগঞ্জ উপজেলার শিমলা রোকনপুর ইউনিয়নের পুকুরিয়া গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা লিটন মেম্বার ও মনোহরপুর গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা বজলু মণ্ডলের মধ্যে এলাকায় রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এরই জেরে মঙ্গলবার রাতে দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়ায়। লিটন গ্রুপের লোকজন বিপুল ও তার সঙ্গে থাকা জাহাঙ্গীরের ওপর হামলা চালায়। এ সময় বিপুল ও জাহাঙ্গীরকে কুপিয়ে জখম করা হয়। আহত হন আরও দুইজন। গুরুতর আহতাবস্থায় বিপুলকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। আহত চারজনকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে জাহাঙ্গীরের অবস্থার অবনতি হলে রাতে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

কালীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের এক নেতা জানান, নিহত বিপুল শিমলা-রোকনপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। কালীগঞ্জ থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, রাতেই অভিযান চালিয়ে ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সতর্ক রয়েছে। এ ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি।