রবিবার ৩০ এপ্রিল, ২০১৭, রাত ১০:৪৮

ভ্লাদিমির ইলিচ লেনিনের জন্ম

Published : 2017-04-21 22:39:00, Count : 61
বিপ্লবী এবং মার্কসবাদী কমিউনিস্ট রাজনীতিবিদ ভ্লাদিমির ইলিচ ইলিয়ানভ লেনিন ১৮৭০ সালের ২২ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেন। তিনি অক্টোবর এবং মহান নভেম্বর বিপ্লবে বলশেভিকদের প্রধান নেতা ছিলেন। লেনিন সোভিয়েত ইউনিয়নের প্রথম রাষ্ট্রপ্রধান।
লেনিনকে বিংশ শতকের অন্যতম প্রধান ঐতিহাসিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তাঁর সমর্থকরা তাঁকে গণমানুষের অধিকার আদায়ের বলিষ্ঠ যোদ্ধা হিসেবে বিবেচনা করে। অপরদিকে তাঁর বিরুদ্ধবাদীরা তাঁকে স্বৈরাচার শাসন ব্যবস্থার প্রবর্তনকারী এবং গৃহযুদ্ধের প্রশ্রয়দাতা ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য দায়ী হিসেবে বিবেচনা করে। তথাপি সোভিয়েত ইউনিয়নের জনক হিসেবে তিনি বিশ্বব্যাপী সুপরিচিত। এছাড়া মার্কসবাদ-লেনিনবাদ তত্ত্বের প্রবক্তা হিসেবেও তিনি বিশ্বের রাজনৈতিক ইতিহাসে পরিচিত। লেনিন আন্তর্জাতিক সাম্যবাদী আন্দোলনের অন্যতম প্রধান ব্যক্তিত্ব। ১৯০০ সালে একটি সংবাদপত্র (বিপ্লবী প্রচারপত্র) প্রকাশ করার উদ্দেশ্যে লেনিন পৃথিবীর বিভিন্ন বড় শহর সফর করেন। এই সময় তিনি জুলিয়াস মার্টয়ের সঙ্গে মিলিত হয়ে দেশের বাইরে থেকেই ইস্ক্রা (স্ফুলিঙ্গ) নামে একটি সংবাদপত্র প্রকাশ করেন। এর সঙ্গে সঙ্গে তিনি সর্বহারা শ্রেণি, তাদের অধিকার প্রভৃতি নিয়ে কিছু পত্রিকা ও পুস্তক রচনা করেন। এই কাজে তাঁকে সহায়তা করেছিলেন সেইসব মার্কসবাদী, যারা জার শাসিত রাশিয়া থেকে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছিলেন। রাশিয়ান সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক লেবার পার্টি গঠনের সময় ভ্লাদিমির ইলিচ ইলিয়ানভ লেনিন ছদ্মনাম গ্রহণ করেন। সাইবেরিয়ার লেনা নদীর নামানুসারে তিনি নিজের নাম রাখেন লেনিন। ১৯০২ সালে তিনি কী করতে হবে? শীর্ষক একটি পুস্তক রচনা করেন, যাতে বলা হয়-বিপ্লবের নেতৃত্ব এমন এক অনুশাসিত দলের হাতে থাকা উচিত, যাদের প্রধান কাজ হবে অধিকারের জন্য লড়াই করা। ১৯২৪ সালের ২১ জানুয়ারি লেনিন মারা যান।