শনিবার ২১ অক্টোবর, ২০১৭, সকাল ০৭:২৩

চট্টগ্রামের ঘটনায় ছাত্রলীগের বিবৃতি

Published : 2017-04-19 22:08:00, Updated : 2017-04-19 22:13:39, Count : 8046
অনলাইন ডেস্ক: চট্টগ্রামে পুলিশের হাতে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের লাঞ্চিত ও আহত হওয়ার ঘটনায় বিবৃতি প্রদান করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। বুধবার রাতে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির দপ্তর সম্পাদক মোঃ দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা কর্তৃক স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি বিবৃতি পাঠানো হয়। 

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সুনামের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে আসছে বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যরা। সাম্প্রতিক সময়ে সারাদেশে সংঘটিত জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও মাদক নির্মূলে যথেষ্ট দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে আসছে পুলিশ। যা দেশীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে পুলিশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে। কিন্তু চট্টগ্রামে মহানগর ছাত্রলীগের সঙ্গে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে যে ঘটনাটি ঘটেছে। তা কোনোভাবেই কাম্য নয়। 

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জাতির জনকের নিজ হাতে গড়া ছাত্রসংগঠন। ছাত্রলীগ একটি সুশৃঙ্খল ছাত্রসংগঠন। বিভিন্ন সময়ে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটলে বা দেশের কোথাও কোনো সমস্যার সৃষ্টি হলে সঙ্গে সঙ্গে কেন্দ্রীয়ভাবে সংশ্লিষ্ট ইউনিটের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার পাশাপাশি আইনগত পদক্ষেপও নেয়া হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়েছে, চট্টগ্রামের আন্দোলনটি ছিল একটি যৌক্তিক ও শান্তিপূর্ণ আন্দোলন। ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা নিয়মতান্ত্রিকভাবেই সেখানে আন্দোলন করছিল। কিন্তু তাদের এই শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে হঠাৎ করে পুলিশের কতিপয় সদস্য আন্দোলনরত ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের ওপর হামলা করে। 

এতে ছাত্রলীগের অনেক নেতা-কর্মী আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। তাই এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত পুলিশ সদস্যসহ এর পেছনে যারা উস্কানী দিয়েছেন, তাদের সবাইকে চিহ্নিত করে তদন্তসাপেক্ষে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানাচ্ছি। সেইসঙ্গে কোনো ধরণের উস্কানী কিংবা গুজবে কান না দিয়ে ন্যায়ের পথে ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। বিজ্ঞপ্তি। 

প্রসঙ্গত, গতকাল মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) বিকাল সোয়া ৪টার দিকে নগরীর কাজীর দেউড়ি মোড়ের আউটার স্টেডিয়াম এলাকায় সুইমিং পুল নির্মাণের কাজ বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করে মহানগর ছাত্রলীগ। এ সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় বেশ কয়েকজন ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী আহত হন।