মঙ্গলবার ২৩ জানুয়ারি, ২০১৮, রাত ০৪:২০

হাসিনা ও মোদিকে পদত্যাগ করতে বললেন সঞ্চালক! [ভিডিও]

Published : 2017-04-08 18:03:00, Updated : 2017-04-08 22:51:19
অনলাইন ডেস্ক: ভারতের নয়াদিল্লির হায়দরাবাদ হাউজে বৈঠকের পরে যৌথ বিবৃতি দেন নরেন্দ্র মোদী এবং শেখ হাসিনা। এই বৈঠকে বাংলাদেশ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে দুই দেশের মধ্যে মোট ২২টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।

শনিবার (০৮ এপ্রিল) ভারতের নয়াদিল্লির হায়দরাবাদ হাউজে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে কলকাতা-ঢাকা-খুলনা মৈত্রী এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। পরে চুক্তি স্বাক্ষরের পর দুই দেশের  প্রধানমন্ত্রী বিবৃতি দেন। বিবৃতি শেষেই ঘটল বিভ্রাটটা। আর এ ঘটনার পর  প্রায় এক মিনিট ধরে হাসতে থাকেন তারা। কারণ অনুষ্ঠানের সঞ্চালক তাদের 'পদত্যাগ' করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন!

আর এ সময়ই তিনি ইংরেজি শব্দবন্ধের ভুল প্রয়োগ করেন! এর ফলে বদলে গেল বাক্যের মানেটাই। আর তাতেই রীতিমতো শোরগোল দিল্লির হায়দরাবাদ হাউজে। খোদ রাষ্ট্রপ্রধানদের সামনেই ঘটে গেল এই ঘটনা।

সে সময় দুই প্রধানমন্ত্রীকে মঞ্চ থেকে নীচে আসতে অনুরোধ করেন ভারতীয় ওই অনুষ্ঠানের সঞ্চালক। আর তা করতে গিয়েই এই ভুল শব্দ ব্যবহার করে বসেন তিনি।

এ সময় তিনি বলেন, 'মে আই রিকোয়েস্ট দ্য টু প্রাইম মিনিস্টার্স টু নাউ প্লিজ স্টেপ ডাউন।'

এ কথা শোনার পরই মঞ্চ থেকে নিচে নামতে নামতে মুচকি হাসতে থাকেন মোদি। এ সময় হাসিতে যোগ দেন শেখ হাসিনাও।

তবে নরেন্দ্র মোদী এবং শেখ হাসিনা দু'জনেই বিষয়টিকে হালকাভাবে নিয়ে কূটনৈতিক নিয়মকানুন থেকে দূরে সরে সহজ সরল মজায় মেতে উঠলেন। প্রায় এক মিনিট ধরে চলে ওই হাসি। আর তাতেই সুন্দরভাবে স্পষ্ট হল ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্কের রসায়ন।

ইংরেজিতে 'স্টেপ ডাউন' শব্দবন্ধের অন্য অর্থ 'পদত্যাগ করা'। ফলে এ কথার অর্থ দাঁড়ায়, তিনি নরেন্দ্র মোদী এবং শেখ হাসিনাকে পদত্যাগ করতে অনুরোধ করছেন। সাংবাদিক ও আমলাদের মধ্যে থেকে কেউ ভুল ধরিয়ে দেওয়ার আগেই হাসির রোলে ফেটে পড়ে হায়দরাবাদ হাউজ ঘর।