শনিবার ২০ জানুয়ারি, ২০১৮, দুপুর ০১:১৫

রোহিঙ্গা মুসলিম হত্যার কথা অস্বীকার করলেন সুচি

Published : 2017-04-06 10:59:00
অনলাইন ডেস্ক: মিয়ানমারের গণতন্ত্রকামী নেত্রী অং সান সুচি রোহিঙ্গা মুসলমানদের জাতিগতভাবে নিধন করা হচ্ছে এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। বার্তাসংস্থা বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে এ কথা বলেন তিনি। তবে রাখাইন রাজ্যে চলমান সমস্যার কথা স্বীকার করেছেন সুচি।

সুচি বলেছেন, রাখাইন রাজ্যে যথেষ্ট সমস্যা রয়েছে। তবে সেখানকার একটি জাতিকে 'নিধন' করা হচ্ছে এমন তথ্য ঠিক নয়। চলতি বছরে এই প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে সাক্ষাতকার দিলেন শান্তিতে নোবেল জয়ী মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচি।

তাকে মানবাধিকার রক্ষার দূত এবং শান্তিতে নোবেল জয়ী হয়েও নিজের দেশে রোহিঙ্গাদের নির্মূলে বাধা দিতে ব্যর্থ হয়েছেন কেন এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি এই অভিযোগ এড়িয়ে যান। উল্টো তিনি বলেছেন, "রাখাইন প্রদেশের সংঘর্ষে মুসলমানরাই মুসলমানদের হত্যা করেছে। সেখানকার মানুষ বিভক্ত এবং আমরা সেটা কমিয়ে আনার চেষ্টা করছি।"

সাক্ষাতকারে সুচি এই বিষয় নিয়ে তার মতামত প্রকাশ করে বলেন সেখানে গত বছর অক্টোবরে পুলিশের ওপর হামলার পর থেকেই সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়েছে। তারপর থেকে সামরিক বাহিনী সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে। এক পর্যায়ে তিনি বলেছেন প্রতিবেশী বাংলাদেশে যেসব রোহিঙ্গা শরণার্থী হিসেবে চলে গিয়েছে তারা ফিরে আসতে চাইলে তাদের গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, রাখাইন রাজ্যে মুসলিম জনগোষ্ঠীর ওপর সেনাবাহিনীর হত্যা, ধর্ষণের মতো মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় বিশ্বব্যাপী সমালোচিত হয়েছেন সুচি। এ বিষয়ে তিনি বলেন, "আমি মার্গারেট থ্যাচার কিংবা মাদার টেরেসা নই। আমি শুধুই একজন রাজনীতিবিদ।" পরিশেষে তিনি রাখাইন রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানকে আবারো আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। সূত্র: বিবিসি বাংলা