বুধবার ২৪ জানুয়ারি, ২০১৮, বিকাল ০৫:৪৫
ব্রেকিং নিউজ

■  ২০১৯ সালে বাংলাদেশে বেকারের সংখ্যা হবে ৩০ লাখ: আইএলও ■  রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে বিলম্বের জন্য বাংলাদেশ দায়ী: মিয়ানমার ■  হবিগঞ্জে কৃষক হত্যায় একই পরিবারের ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড ■  পশুখাদ্য মামলায় ফের ৫ বছরের কারাদ্ণ্ড লালুপ্রসাদের ■  আ.লীগ ৪০টির বেশি আসন পাবে না : জানালেন মোশাররফ ■  নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া নির্বাচন হবে না: হুশিয়ারি ফখরুলের ■  ২৯ জানুয়ারি ছাত্র ধর্মঘট ডেকেছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট ■  চবিতে প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্যের মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা ■  ঢাবি উপাচার্যকে হেনস্তার ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি ■  আফগানিস্তানে ‘সেভ দ্য চিলড্রেন’ কার্যালয়ে হামলা, নিহত ২ ■  ঢাবিতে অরাজকতা হতে দেওয়া হবে না: হুশিয়ারি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

উ. কোরিয়া ১৮ দেশের ব্যাংকে সাইবার হামলায় জড়িত

Published : 2017-04-04 12:59:00, Updated : 2017-04-04 20:10:52
অনলাইন ডেস্ক: উত্তর কোরিয়ার হ্যাকিং অভিযান প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং ক্রমাগত তারা দুঃসাহসী হয়ে উঠছে। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো হ্যাকাররা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাদের মূল লক্ষ্য বানাচ্ছে। রাশিয়ার সাইবার নিরাপত্তা সংক্রান্ত প্রতিষ্ঠান ক্যাসপারস্কির সাম্প্রতিক একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী বিশ্বের ১৮ টি দেশের ব্যাংকে সাইবার হামলার সাথে উত্তর কোরিয়া জড়িত। হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে চুরি করা অর্থ উত্তর কোরিয়ার পারমানবিক কার্যক্রম উন্নত করার জন্য ব্যয় করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে দুইজন আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ।

ব্যাংক এবং নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে এর আগে বাংলাদেশ, ইকুয়েডর, ফিলিপাইন এবং ভিয়েতনামের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোতে এ ধরনের সাইবার হামলা করা হয়েছে। তবে এখন ক্যাসপারস্কির গবেষকরা বলেছেন 'ল্যাযারাস' নামক একই ধরনের হ্যাকিং অভিযান কোস্টারিকা, ইথিওপিয়া, গ্যাবন, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইরাক, কেনিয়া, মালয়েশিয়া, নাইজেরিয়া, পোল্যান্ড, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড এবং উরুগুয়েতে করা হয়েছে।

হ্যাকারদের উত্তর কোরিয়াত থেকেই শনাক্ত করা সম্ভব বলে জানিয়েছে গবেষকরা। সাধারনত হ্যাকাররা তাদের অবস্থান লুকাতে তার নিজস্ব এলাকা থেকে দূরবর্তী স্থানে বসে হামলা চালায়। তবে ক্যাসপারস্কির তথ্য অনুযায়ী 'ল্যাযারাস' হ্যাকাররা সতর্কতার সাথে তাদের সিগন্যাল ফ্রান্স, দক্ষিণ কোরিয়া এবং তাইওয়ানের মধ্য দিয়ে ঘুরিয়ে হামলা চালিয়েছে। তবে এত সতর্কতা স্বত্ত্বেও ক্যাসপারস্কি তাদের একটি ভূল ধরতে সক্ষম হয়েছে। তারা উত্তর কোরিয়া থেকে আসা ছোট একটি সংযোগ খুঁজে বের করেছে।

ক্যাসপারস্কির এশিয়া-প্যাসিফিক গবেষক দলের প্রধান ভিতালি কামলুক বলেছেন, "হ্যাকিং সমীকরণে উত্তর কোরিয়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ।" ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জের সেন্ট মার্টিনে সোমবার (৩ এপ্রিল) অনুষ্ঠিত ক্যাসপারস্কির সিকিউরিটি অ্যানালিস্ট সামিটে গবেষকরা এসব তথ্য জনসম্মুখে তুলে ধরেন। 'ক্যাসপারস্কি' বিশ্বের শীর্ষ সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান এবং সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যান্টি-ভাইরাস কোম্পানি। এর গবেষকরা বিশ্বের সবচেয়ে দুর্বোধ্য কিছু হ্যাকিং অভিযান ফাঁসের জন্য সুপরিচিত। এ প্রতিষ্ঠানের সাথে রাশিয়ার সরকারের সংযোগ রয়েছে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেছে মার্কিন আইনজীবীরা। তবে ক্যাসপারস্কি বরাবরই তাদের কোম্পানির ব্যবসায় ক্রেমলিনের প্রভাবের কথা অস্বীকার করে আসছে। সূত্র: সিএনএন