শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, সকাল ১০:৪৪

খালেদার অবর্তমানে দল চলবে যেভাবে 

Published : 2018-02-08 22:33:00, Updated : 2018-02-08 23:00:35
অনলাইন ডেস্ক: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পুরাতন ঢাকার নাজিমউদ্দীন রোডে সাবেক ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের দু'টি কক্ষে তাকে রাখা হয়েছে। চেয়ারপারসনের অবর্তমানে দল চালানোর বিষয় নিয়ে দলের স্থায়ী কমিটিতে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন একাধিক সিনিয়র নেতা। 

বিএনপির দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির গঠনতন্ত্রে দলীয় চেয়ারপারসনকে দল পরিচালনার একক ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। তার অনুপস্থিতিতে এই ক্ষমতা ভোগ করেন সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। কিন্তু উক্ত মামলায় ১০ বছর এবং এর আগে অর্থপাচার মামলায় ৭ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। তাছাড়া, তিনি গত ১০ বছর ধরে লন্ডনে অবস্থান করছেন। এমতাবস্থায় দল পরিচালনা নিয়ে স্থায়ী কমিটির সদস্যরা কথা বলেছেন। 

বিএনপির সিনিয়র নেতাদের কয়েকজন বলেন, আগামী কয়েক সপ্তাহ দলের করণীয় চেয়ারপারসন নির্ধারণ করে দিয়েছেন। ফলে নতুন নীতি গ্রহণের প্রয়োজন হবে না। তাছাড়া, দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনা ও পরামর্শে দল চলবে। 

দলের এমন পরিস্থিতিতে পরিচালনায় সব কাজ সামনে থেকে নেতৃত্ব দেবেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনিই দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কর্মসূচি পালন করবেন। মাঠপর্যায়ে নির্দেশনাসহ সব কাজ করবেন। তবে নীতি নির্ধারণী কোনো বিষয়ে মির্জা ফখরুল একক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন না। এ জন্য তাকে বর্তমান স্থায়ী কমিটির নেতাদের ওপর নির্ভর করতে হবে।

জানা গেছে, বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৫(গ) ধারায় সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যানকে দ্বিতীয় ক্ষমতাবান ব্যক্তির মর্যাদা দিয়েছে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ স্থায়ী কমিটির নয় সদস্য। অন্য আট সদস্য হলেন মওদুদ আহমদ, মাহবুবুর রহমান, তরিকুল ইসলাম, জমিরউদ্দীন সরকার, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।