সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, সকাল ০৮:১১

খালেদা জিয়ার কারাদণ্ডে আওয়ামী লীগের আনন্দ

Published : 2018-02-08 16:36:00
সংগৃহিত ছবি

অনলাইন প্রতিবেদক : খালেদা জিয়ার রায় ঘোষণার পর পরই স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়। বিশেষ আদালতের রায় শোনার পরই আওয়ামী লীগ ও তাদের সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বঙ্গবন্ধু এভিনিউ প্রাঙ্গণে স্লোগান দিতে থাকে। এ সময় তারা খণ্ড খণ্ড মিছিলও করে।

রায় ঘোষণার পর ধানমণ্ডিতে দলের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে ৩/এ সড়কে আওয়ামী মহিলা লীগের নেতাকর্মীরা পৃথক  আনন্দ মিছিল করেছে। রায় ঘোষণার পরপরই  বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে এ আনন্দ মিছিল হয়। যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিলের নেতৃত্বে আনন্দ মিছিল হয়।

বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টা ২৯ মিনিটে রায় ঘোষণার পরে প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের (দক্ষিণ) সভাপতি আবুল হাসনাত সাংবাদিকদের বলেন, ‘দুর্নীতি করে যে কেউ পার পায় না, এ রায়ে তা প্রমাণিত হয়েছে। আদালত যে ন্যায়বিচার করে তাও প্রমাণ হয়েছে। এই রায়টি মানুষের জন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। ভবিষ্যতে এ রায় থেকে শিক্ষা নিয়ে মানুষ দুর্নীতি থেকে বিরত থাকবে।’

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের (দক্ষিণ) সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ বলেন, ‘যে যতই ক্ষমতাধর হোক না কেন, আইনের চোখে যে সবাই সমান, এই রায়ের মাধ্যমে আমরা তার প্রতিফলন দেখতে  পেয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘এ রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপির সন্ত্রাসীরা যদি কোনও নৈরাজ্য ও ধ্বংসযজ্ঞ চালানোর চেষ্টা করে, দেশের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমরা তা মোকাবিলা করবো। সন্ত্রাস, নৈরাজ্য মোকাবিলায় আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করবো।’

এর আগে সকাল থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে দলের প্রধান কার্যালয়ে এসে জড়ো হন। সকাল ১০টা নাগাদ নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে বঙ্গবন্ধু এভিনিউ এলাকা সরব হয়ে ওঠে। তারা অপেক্ষা করেন রায়ের জন্য। রায় ঘোষণার পরই মিছিল স্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে পুরো এলাকা।

এর আগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ৫ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। শারীরিক ও সামাজিক দিক বিবেচনা করে তাকে এই দণ্ড দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে এ মামলার অপর আসামি তার বড় ছেলে তারেক রহমানসহ বাকি পাঁচ জনকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে তাদের ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।