রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, রাত ১২:১১

শাহরুখ খানের কি সাজা হবে?

Published : 2018-02-06 10:33:00, Updated : 2018-02-06 14:09:56

অনলাইন ডেস্ক : ভারতের জনপ্রিয় সুপারস্টার শাহরুখ খানের সময়টা ভালো যাচ্ছে না।এই তাকে ঘিরে তৈরি হয়েছে ব্যাপক বিতর্ক।এর কারণ শাহরুখ খানের আলিবাগের বিলাসবহুল ফার্মহাউজ বাজেয়াপ্ত করেছে ভারতের আয়কর বিভাগ।যেটি বেআইনিভাবে বানানো হয়েছে চাষের জন্য কেনা জমিতে।

জানা যায়, শাহরুখের এই বাংলোটি কোনোভাবেই কোস্টাল রেগুলেশন জোনের নিয়ম মেনে বানানো হয়নি। এবার এই বেনামি ফার্মহাউজের মামলায় শাহরুখকে আরো বিপাকে ফেললেন তার প্রাক্তন চাটার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট মোরেশ্বর আজগাওঙ্কর।এ খবর জানয়িছে জি নিউজ।

চিঠি লিখে আয়কর বিভাগকে বিস্ফোরক তথ্য জানিয়েছেন মোরেশ্বর। তার কথায় ‘দেজা ভু’ কোম্পানি নয়, শাহরুখই আসলে এই বেনামি সম্পত্তির মালিক।আর কিং খান নিজেই তাকে আলিবাগের ফার্মহাউজের ভুয়া দলিল তৈরি করতে বলেছিলেন।শাহরুখ আসলে আলিবাগের ফার্মহাউজের মালিক হিসেবে দেখিয়েছেন ‘দেজা ভু’ নামে একটি কোম্পানিকে। যে  কোম্পানির ডিরেক্টর তার শ্বশুর রমেশ ছিব্বর, শাশুড়ি সবিতা ছিব্বর ও শ্যালিকা নমিতা ছিব্বর।

দেখানো হয়েছে ‘দেজা ভু’ কোম্পানি আয়ের একাংশ আসে কৃষিকাজ থেকে। অথচ এমন কোনো আয়ই নাকি দেখাতে পারেনি ‘দেজা ভু’। দেখানো হয়েছে ‘দেজা ভু’ কোম্পানিকে এই চাষের জমি কিনতে ৮.৫ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছিলেন শাহরুখ। আর এ থেকেই আয়কর দপ্তরের ধারণা হয় আলিবাগের ফার্মহাউজের আসল মালিক শাহরুখ। সেই ধারণা আরো জোরালো হলো আয়কর বিভাগকে লেখা মোরেশ্বর আজগাওঙ্করের চিঠির কারণে।

আইন ভেঙে বেনামি ফার্মহাউজ বানানোই নয়, উঠেছে আরো অনেক প্রশ্ন।চাষের জন্য কেনা জমিতে কেন বানানো হলো এই বিলাসবহুল বাংলো।উপকূলবর্তী অঞ্চলে যেখানে সুইমিং পুল বানানো নিষিদ্ধ, সেখানে শাহরুখের আলিবাগের ফার্মহাউজে রয়েছে সুইমিং পুল, হ্যালিপ্যাড, কৃত্রিম সমুদ্রতট আরো কত কি! সূত্রের খবর, আয়কর দপ্তরের প্রশ্নের সব উত্তর ঠিকমতো দিতে না পারলে বড়সড় আইনি জটিলতায় জড়াতে হতে পারে বলিউড বাদশাকে।সম্পত্তি তো হাতছাড়া হবেই অপরাধ প্রমাণিত হলে বিপুল পরিমাণ জরিমানা এমনকি জেলও হতে পারে শাহরুখ খানের।