শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, বিকাল ০৩:৪৬

খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানাতে গিয়ে নারায়ণগঞ্জে গ্রেপ্তার ৬

Published : 2018-02-05 12:21:00, Updated : 2018-02-05 12:54:08

অনলাইন প্রতিবেদক : বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সিলেট যাওয়ার পথে স্বাগত জানাতে গিয়ে গ্রেপ্তার হয়েছেন বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খানসহ ৬ নেতাকর্মী। সোমবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল সোয়া ১০টার দিকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। 

ছয় বিএনপি নেতাকর্মীকে আটক করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরফুদ্দিন।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, খালেদার বহরের নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুরো নারায়ণগঞ্জ এলাকার সড়কে দায়িত্বরত পুলিশের বাধা ভেঙে এই নেতাকর্মীরা অভ্যর্থনা জানাতে গেলে তাদের আটক করা হয়। 

প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, সকালে খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানাতে আড়াইহাজার উপজেলার পাঁচমুখী এলাকায় ঢাকা সিলেট মহাসড়কে জমায়েত হওয়ার চেষ্টা করেন নজরুল ইসলাম আজাদ তাঁর লোকজন। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাঁদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ নজরুল ইসলাম আজাদকে গ্রেপ্তার করেন।

নজরুল ইসলাম আজাদ আড়াইহাজারে যুবলীগ নেতা আমজাদ হত্যা মামলার আসামি। যদিও তিনি জামিনে রয়েছেন।

খালেদা জিয়াকে অভ্যর্থনা জানাতে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় এলাকায় নেতাকরর্মীদের নিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে জড়ো হওয়ার চেষ্টা করেন বিএনপি নেতা সাখাওয়াত। এ সময় পুলিশ সেখান থেকে সাখাওয়াতসহ পাঁচজনকে আটক করে। তারা হলেন, মহানগর বিএনপির আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনোয়ার প্রধান, আইনজীবী নেতা অ্যাডভোকেট মাইনউদ্দিন এবং দলের কর্মী ইসরাফিল ও জুয়েল।

হজরত শাহজালাল (র.) ও হজরত শাহপরান (র.)-এর মাজার জিয়ারত করতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আজ সিলেটের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। তবে এটা কোনো নির্বাচনী প্রচারণা নয় বলে দাবি করেছেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। সকাল সোয়া ৯টার দিকে খালেদা জিয়া রাজধানীর গুলশানের বাসভবন থেকে সিলেটের উদ্দেশে রওনা হন।

খালেদা জিয়ার আগমনকে কেন্দ্র করে ডাকা সিলেট ও ডাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে বিপুল সংখ্যক পুলিশ অবস্থান নিয়েছে। বিএনপির কোনো নেতা-কর্মী বা পথচারীকে মহাসড়কের পাশে দাঁড়াতে দেওয়া হয়নি।