শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, রাত ০২:০৯

তৃতীয় দিনে ৯ রানে পিছিয়ে লঙ্কানরা

Published : 2018-02-02 10:15:00, Updated : 2018-02-02 17:36:54

অনলাইন ডেস্ক :  

বাংলাদেশের ৫১৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেটে ৫০৪ রান করে শুক্রবার (০২ ফেব্রুয়ারি) তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে শ্রীলঙ্কা। স্বাগতিক বাংলাদেশের চেয়ে ৯ রান পিছিয়ে আগামীকাল চতুর্থদিনের খেলা শুরু করবে লঙ্কানরা। আর মাত্র ১০ রান যোগ করতে পারলেই লঙ্কানরা পেয়ে যাবে লিড।

শুক্রবার দিনটিই ছিল বাংলাদেশের জন্য হতাশার। সারাদিনের অর্জন বলতে মোটে ২ উইকেট। এছাড়া পুরো ৯০ ওভারেই খাটতে হলো টাইগারদের। লঙ্কান শিবিরে কোন চাপই সৃষ্টি করতে পারলো না মিরাজ-সানজামুলরা।

 বাংলাদেশের এমন নির্বিষ বোলিংয়ে প্রতিপক্ষ পেয়েছে দারুণ কিছু রেকর্ড। শূন্য রানে প্রথম উইকেট পড়ার পর তাঁদের ৩০৮ রানের জুটি টেস্ট ইতিহাসেই সর্বোচ্চ। এ পথে তাঁরা ভেঙেছেন ৯২ বছর আগের এক রেকর্ড। ১৯২৬ সালে লিডস টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শূন্য রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর ২৩৫ রানের জুটি গড়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার বিল উডফুল ও চার্লস ম্যাকার্টনি।

 

বাংলাদেশের করা ৫১৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে রানের খাতা না খুলতেই দিমুথ করুণারত্নেকে হারায় লঙ্কানরা। এরপরেই মেন্ডিস ও ধনাঞ্জয়ার ব্যাটে দুর্দান্তভাবেই ঘুরে দাঁড়ায় লঙ্কানরা।

 

দ্বিতীয় উইকেটে ৩০৮ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশের বোলারদের ভালোই ভুগিয়েছেন কুশল মেন্ডিস ও ধনঞ্জয় ডি সিলভা। দুজনেই পূর্ণ করেছেন শতক। আজ দ্বিতীয় সেশনের শুরুতে ডি সিলভাকে আউট করে লঙ্কান প্রতিরোধ ভেঙেছেন মুস্তাফিজুর রহমান। ১৭৩ রান করে আউট হয়েছেন ডি সিলভা। দ্বিশতকের খুব কাছাকাছি গিয়েও হতাশ হতে হয়েছে মেন্ডিসকেও। ১৯৬ রান করে মুস্তাফিজে আউট হয়েছেন এই ডানহাতি ওপেনার।

চতুর্থ উইকেটে আবার ৮৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে আজ তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছেন দিনেশ চান্দিমাল ও রোশেন সিলভা। লঙ্কান অধিনায়ক চান্দিমাল দিনশেষে অপরাজিত আছেন ৩৭ রান করে। আর রোশেন সিলভা পৌঁছে গেছেন শতকের দ্বারপ্রান্তে। অপরাজিত আছেন ৮৭ রান করে।

এর আগে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ সংগ্রহ করেছিল ৫১৩ রান। মুমিনুল হকের ১৭৬, মুশফিকুর রহিমের ৯২, মাহমুদউল্লাহর অপরাজিত ৮৩, তামিম ইকবালের ৫২, ইমরুল কায়েসের ৪০ রানের ইনিংসগুলোতে ভর করে প্রথম ইনিংসে শক্ত অবস্থানই গড়ে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মোট ১৮টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে জিতেছে ১টি, ড্র ২টি আর হার ১৫টি। টেস্টে দুই দলের সর্বশেষ লড়াইয়ে জয় বাংলাদেশের। সেটিও শ্রীলঙ্কার মাটিতে। নিজেদের শততম টেস্টে টাইগাররা জয় তুলে নিয়েছিল লঙ্কার মাটিতে।

তবে বাংলাদেশ দলের কোচ ছিলেন তখন চন্দিকা হাথুরুসিংহে। এবার সেই হাথুরুসিংহে নিজ দেশ শ্রীলঙ্কার কোচ। দ্বৈরথটা তাই অন্যরকম বার্তা দিচ্ছে। যদিও বাংলাদেশকে মাঠে নামতে হচ্ছে সবচেয়ে বড় তারকা সাকিব আল হাসানকে ছাড়া। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে হাতের আঙ্গুলে চোট পেয়ে প্রথম টেস্ট থেকে ছিটকে যান তিন ফরম্যাটেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। টেস্টে ক’দিন আগেই নেতৃত্ব পেয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু নেতৃত্ব পাওয়ার পর নিজ দেশের প্রথম টেস্টটাই মিস করছেন তিনি। প্রথম টেস্টে তার বদলে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তাই মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ওয়ানডেতে বাংলাদেশ বেশ সমীহ জাগানিয়া দলে পরিণত হয়েছে অনেকদিন। তবে টেস্টেও ইদানিং সবার শ্রদ্ধা আদায় করে নিতে শুরু করেছে। শেষ দুই বছরে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াকে ঘরের মাঠে হারিয়েছে বাংলাদেশ। সেই ধারাবাহিকতা শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও দেখতে চায় লাল-সবুজের দর্শকরা।

তৃতীয় দিন শেষে স্কোর:

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: (দ্বিতীয় দিন শেষে ১৮৭/১) ১৩৮ ওভারে ৫০৪/৩ (করুনারত্নে ০, মেন্ডিস ১৯৬, ধনঞ্জয়া ১৭৩, রোশেন ৮৭*, চান্দিমাল ৩৭*; মুস্তাফিজ ২৫-৫-৮৮-১, সানজামুল ৩৭-২-১২৮-০, মিরাজ ১৯-০-৯৭-১, তাইজুল ৫১-১৩-১৪৪-১, মোসাদ্দেক ৩-০-২৪-০, মুমিনুল ২-০-৬-০, মাহমুদউল্লাহ ১-০-৭-০)

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৫১৩