শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, বিকাল ০৩:৪৩

খালেদা জিয়ার রায় : ৬ মন্ত্রী যা বললেন

Published : 2018-01-29 10:13:00, Updated : 2018-01-29 16:19:46
ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায় ঘিরে ৮ ফেব্রুয়ারি কি ঘটতে যাচ্ছে? সব মহলে তুমুল উত্তেজনা, কৌতুহল, আগ্রহের শেষ নেই।বিএনপি ও আওয়ামী লীগ রয়েছে বাকযুদ্ধে।বিএনপি নেতাদের একের পর এক বক্তব্যে এই আশংকাই ব্যক্ত হয়েছে যে, রায়ে খালেদা জিয়া দণ্ডিত হতে যাচ্ছেন।সরকারি দলের মন্ত্রী নেতারাও কিছুদিন ধরে বলে আসছেন, রায়কে ঘিরে বিএনপি কোনো অস্থিরতা করতে চাইলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে। সর্বশেষ জাতীয় পার্টির নেতা ও সরকারের প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙা ১৫ দিনের মধ্যে খালেদা জিয়া জেলে যাবেন বলে জলন্ত চুলোয় ঘি ঢেলে দিয়েছেন। গোটা রাজনৈতিক অঙ্গনজুড়ে টান টান উত্তেজনা চলছে। রায় প্রসঙ্গে ৬ মন্ত্রী বললেন ভিন্ন ভিন্ন কথা।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের : ২৮ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমরা বিচার নিয়ে কোনো আপোস করি না। বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে কাজ করছে। আওয়ামী লীগের অনেক মন্ত্রী-এমপি বিচারের মুখোমুখি আছেন। যেই অপরাধ করবে সে শাস্তি ভোগ করবে। বিএনপির সময় এমনটা হয়নি। আগুন ও বোমা নিয়ে সন্ত্রাস নিয়ে কেউ এদেশে ক্ষমতায় আসতে পারবে না। বিএনপি গত নয় বছরেও আন্দোলন জমাতে পারেনি, ওরা আর পারবেও না।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির আন্দোলনের মরা গাঙ্গে আর জোয়ার আসবে না। বিএনপি এখন ঘরে বসে মিথ্যাচারের ভাঙা রেকর্ড বাজাচ্ছে। বিএনপির মিথ্যাচার তাদের ক্ষমতায় আনবে না। বিএনপিকে নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। মানুষ উন্নয়নের দল আওয়ামী লীগকেই ক্ষমতায় আনবে। আওয়ামী লীগই দেশের একমাত্র গণতান্ত্রিক দল এবং এই দলের হাত ধরেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। নারায়ণগঞ্জের গোগনগর কয়লাঘাট এলাকায় শীতলক্ষ্যা তৃতীয় সেতুর পাইলের কাজ উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সেতুমন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু :  ২৮ জানুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, আগুন নিয়ে খেলবেন না, আগুন নিজেও জ্বলে, আবার জ্বালায়ও। গায়েবী নির্দেশনার মাধ্যমে খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সিদ্ধান্ত এলে বিএনপি রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করবে-বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর এমন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী আরো বলেন, আদালতের কার্যক্রম বন্ধ রাখা এবং অপরাধীকে হালাল করার দর কষাকষির হাতিয়ার নির্বাচন নয়। খালেদা জিয়া কিংবা তারেক কাউকে আইনের ঊর্ধ্বে রাখার সুযোগ নেই। দল দেখে বা মুখ দেখে আদালত পরিচালনার দিন শেষ হয়েছে। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় আদর্শ কলেজে নতুন ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং নবীনবরণ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল : ২৬ জানুয়ারি মবিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে কেন্দ্র করে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা সহ্য করা হবে না বলে সতর্ক করে দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।রাজধানীর ঢাকেশ্বরী মন্দিরে মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির ‘পরিবার দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী অধিবেশনে এমন হুঁশিয়ারি দেন মন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, এই রায়কে কেন্দ্র করে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ ছাড়া বিশৃঙ্খলা হতে পারে এমন বিষয় মাথায় রেখে সজাগ রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আইন সবার জন্য সমান এমন জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার মানুষের প্রাপ্য অধিকার নিশ্চিত করতে নিরপেক্ষ বিচারব্যবস্থার প্রতি শ্রদ্ধাশীল।

নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান : ২৮ জানুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় প্রসঙ্গে নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, বিএনপির অভিজ্ঞ আইনজীবীরা মামলা পরিচালনা করতে গিয়ে জেনে গেছেন খালেদা জিয়ার সাজা নিশ্চিত। কেয়ারটেকার সরকারের আমলে করা মামলায় আদালত রায় দেবে। এখানে সরকারের কিছু নেই। নৌমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলার মানুষ বুঝে গেছে দুর্নীতি মামলার রায়ে খালেদা জিয়ার সাজা হবে। এ কারণে বিএনপি বলছে সরকার মামলার রায় আগে থেকে নির্ধারণ করে রেখেছে। তবে বিএনপির এ কথার কোনো ভিত্তি নেই। পটুয়াখালীতে পায়রা সমুদ্র বন্দরের সার্ভিস জেটি নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং ওয়ার হাউসের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

সাবেক মন্ত্রী হাছান মাহমুদ :  ২৬ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, খালেদা জিয়া যখন ক্ষমতায় ছিলেন তখন আদালত স্বাধীন ছিল না বিধায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেবরা মনে করেন তাদের সময় আদালত যেভাবে কাজ করতো এখনও মনে হয় আদালত সেভাবেই কাজ করে। এখন আদালত স্বাধীন। বেগম খালেদা জিয়া হয়তো খালাসও পেতে পারেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, আদালতের রায়ে যদি খালেদা জিয়ার সাজা হয়, তার বিচারের রায়ে যদি দোষী সাব্যস্ত হয়, দেশে নাকি আগুন জ্বালাবে বিএনপি। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব, রিজভী সাহেব ও বিএনপির নেতাদের বলতে চই আপনারা দেশে অতীতেও আগুন জ্বালিয়েছেন। সেই আগুনে আপনারা জ্বলেছেন।আবারও যদি আগুন জ্বালানের চেষ্টা করেন তাহলে সেই আগুনে আপনারাই জ্বলে পুড়ে ছারখার হয়ে যাবেন।বলেন আওয়ামী লীগের এই নেতা। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির পাঁয়তারার প্রতিবাদ শীর্ষক এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। 

সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা : ১৯ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, অপেক্ষা করুন, আগামী ১৫ দিনের মধ্যে দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়াকে জেলে যেতে হবে। তিনি সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদকে অন্যায়ভাবে জেলে নিয়ে যে নির্যাতন করেছেন, তাঁকেও তার ফল ভোগ করতে হবে। কক্সবাজারের চকরিয়াস্থ জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে উপজেলা ও পৌরসভা শাখার নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম : স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিচার বিভাগের ওপর আওয়ামী লীগ সরকারের কোনো নিয়ন্ত্রণ বা খবরদারি নেই। বিচার বিভাগ তার আইনে দোষীকে শাস্তি দেবে। সেখানে আমাদের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই।শনিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেলে যমুনার ডানতীরে পাউবোর ৪৬০ কোটি ব্যায়ে ক্ষুদবান্দি-মাছুয়াকান্দি-বাহুকায় প্রায় আট কিলোমিটার নদী তীর রক্ষা প্রকল্পের কাজের উদ্বোধন শেষে কাজিপুরের মাছুয়াকান্দি অনুষ্ঠিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে বিচার বিভাগ আজ স্বাধীন দেখেই খালেদা জিয়া ও তার নেতাকর্মীরা ভয় পায়। বিএনপি বিচার বিভাগকে যেমন ভয় করে, তেমন জনগণের রায়কেও ভয় করে। আগামীতে পরাজয় জেনেই নির্বাচনে আসতে বিএনপির এত সংশয়।