শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, রাত ০৯:৫৭

তুরস্ককে সংযম প্রদর্শনের আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

Published : 2018-01-22 10:48:00

অনলাইন ডেস্ক : কুর্দি মিলিশিয়া গ্রুপ ওয়াইপিজি'র বিরুদ্ধে বড় ধরণের অভিযানে নেমেছে তুরস্ক। ওয়াইপিজিকে তুরস্ক সন্ত্রাসী গ্রুপ হিসেবে বিবেচনা করে এবং আফরিন অঞ্চল থেকে এই গ্রুপকে হটিয়ে দেয়াই এই অভিযানের মূল লক্ষ্য।

তবে তুরস্ককে সংযম প্রদর্শনের আহ্বান জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, এই অভিযানে বেসামরিক নাগরিকদের যেনো ক্ষয়-ক্ষতি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে। অপরদিকে দ্রুত যুদ্ধ বিরতির জন্য দাবি জানিয়েছে ফ্রান্স।

কুর্দি মিলিশিয়াদের বিরুদ্ধে কঠোর অভিযানের অংশ হিসেবে তুরস্কের স্থল বাহিনী সিরিয়ার উত্তরাংশে প্রবেশ করেছে। ওয়াইপিজি নামে পরিচিত এই কুর্দি মিলিশিয়া গ্রুপটি তুরস্কের দক্ষিণ সীমান্ত ছাপিয়ে সিরিয়ার আফরিন অঞ্চল জুড়ে সক্রিয় রয়েছে।

'ওলিভ ব্রাঞ্চ' নামে রোববারে (২১ জানুয়ারি) শুরু হওয়া এই অভিযানের মূল লক্ষ্য আফরিন অঞ্চল থেকে কুর্দি এই বাহিনীকে হঠিয়ে দেওয়া। ওয়াইপিজি অবশ্য বলছে, তুরস্কের বাহিনীকে তারা সেই এলাকায় প্রতিহত করতে পেরেছে এবং টার্কিশ বাহিনীকে তুরস্ক-সীমান্তে সমুচিত জবাব দিয়েছে।

মার্কিন ভাষ্য মতে, সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে লড়াই করে আসছিলো মার্কিন সমর্থনপুষ্ট এই ওয়াইপিজি গ্রুপ। তুরস্ক বিশ্বাস করে যে, এই বাহিনীটির সাথে নিষিদ্ধ ঘোষিত উগ্র গোষ্ঠী কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি বা পিকেকে-এর একটা সংযোগ রয়েছে। তাই এই কুর্দি মিলিশিয়া বাহিনীকে সমূলে যত দ্রুত সম্ভব বিনাশ করার প্রতিজ্ঞা নিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তায়েপ এরদোয়ান।

কিন্তু, তুরস্ককে সংযম প্রদর্শনের জন্য তাগিদ দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, বেসামরিক মানুষদের ক্ষয়-ক্ষতি যাতে না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে। আর যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানানো ফ্রান্স সোমবারে (২২ জানুয়ারি) জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলে এক জরুরি বিতর্কের জন্য ডাক দিয়েছে। সূত্র: বিবিসি