মঙ্গলবার ২৩ জানুয়ারি, ২০১৮, রাত ০২:৩১

ক্ষমা চেয়েছেন শিল্পা শেঠি

Published : 2017-12-25 11:59:00

অনলাইন ডেস্ক : বাল্মিকী সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্যের কারণে এবার ক্ষমা চেয়ে নিলেন শিল্পা শেঠি। টুইট করে তিনি জানিয়েছেন, কারও ভাবাবেগে আঘাত করা তার উদ্দেশ্য ছিল না। ভারতের মতো বৈচিত্রপূর্ণ এক দেশের নাগরিক হয়ে তিনি গর্বিত। এ সংক্রান্ত একটি খবর প্রকাশ করেছে ভারতের সংবাদ প্রতিদিন পত্রিকা।

একই বিতর্কে জড়িয়েছেন সালমান খানও। ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ বক্স অফিসে ভাল ব্যবসা করছে। কিন্তু ছবি মুক্তির দিনই বড় বিতর্কে জড়িয়েছেন বলিউডের ভাইজান। এক রিয়েলিটি শোয়ে তিনি ভাঙ্গি শব্দটি উচ্চারণ করেন। ড্যান্স রিয়েলিটি শোয়ে এক প্রতিযোগীর নাচের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে এ মন্তব্য করে বসেন অভিনেতা। শিল্পাও একই শব্দের প্রয়োগ করেন নিজের কথায়।

এতেই আপত্তি তোলে বাল্মিকী সম্প্রদায়। অভিযোগ,  শব্দটির মাধ্যমে বিশেষ দলিত বাল্মিকী সম্প্রদায়কে অপমান করা হয়েছে। চূড়ান্ত ব্যঙ্গ করার ক্ষেত্রেই এই শব্দের প্রয়োগ করা হয়। এরই প্রতিবাদে শুক্রবার উত্তাল হয়ে ওঠে রাজস্থানের বিখ্যাত রাজ মন্দির প্রেক্ষাগৃহ। প্রেক্ষাগৃহে ভাঙচুর করা হয়। সালমান-ক্যাটরিনার ছবির পোস্টারে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়।

এদিকে জাতীয় উপজাতি অধিকার রক্ষা কমিশন এ ব্যাপারে জবাবদিহি চেয়েছে। মুম্বাই ও দিল্লি পুলিশ কমিশনারের কাছে রিপোর্ট তলব করা হয়েছে। দেশের দুই জনপ্রিয় তারকার মুখে এ শব্দের ব্যবহার শুনে ক্ষুব্ধ হন ওই বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষরা।

তাদের দাবি, তারকারাও যদি এ নিয়ে ব্যঙ্গ করেন, তাহলে তাদের অনুগামীরাও তাই করবেন। আদতে যা এক বিশেষ সম্প্রদায়কে খাটো করে দেখারই নামান্তর। এদিকে সুপ্রিম কোর্টের রায় অনুযায়ী, দলিতদের সম্পর্কে অবমাননাকর মন্তব্য করা দণ্ডনীয় অপরাধ। সেক্ষেত্রে অপরাধ প্রমাণিত হলে সাজার মুখেও পড়তে পারেন দুই তারকা।

এই পরিস্থিতিতেই নিজের ভুল বুঝতে পারেন শিল্পা। টুইট করে তিনি জানিয়ে দেন, ভারতের মতো বৈচিত্রপূর্ণ, নানা জাতির দেশে বাস করতে পেরে তিনি গর্বিত। প্রত্যেক সম্প্রদায়কে তিনি শ্রদ্ধা করেন বলেও খোলাখুলি স্বীকার করেছেন। এর আগে তিনি জানিয়েছিলেন তার কথা ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। তিনি কারও ভাবাবেগে আগাত করতে চান না।

তবে এফআইআর দায়ের পরই এ নিয়ে আর কোনও মতান্তরে গেলেন না শিল্পা। সরাসরি ক্ষমা চেয়ে নিলেন। যদিও সালমানের তরফে এখনও এ ব্যাপারে কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। তার বাড়ির সামনেও বিক্ষোভ দেখানো হয়। ফলে তারকার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।