মঙ্গলবার ১৬ জানুয়ারি, ২০১৮, রাত ১১:৪৪

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতা মানবে না ফিলিস্তিন

Published : 2017-12-23 11:21:00

অনলাইন ডেস্ক : ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র যেভাবে একতরফাভাবে জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী বলে স্বীকৃতি দিয়েছে, এরপর ফিলিস্তিনিরা আর যুক্তরাষ্ট্রের কোন শান্তি প্রস্তাব মেনে নেবে না।

তিনি আরও বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র যে এই শান্তি আলোচনার মধ্যস্থতাকারী হিসেবে অসততার পরিচয় দিয়েছে, সেটা প্রমাণিত। জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে দেয়া স্বীকৃতিকে প্রত্যাহারের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহবান জানিয়ে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) এক প্রস্তাব বিপুল ভোটে পাশ হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র এবং ইসরায়েলসহ মাত্র ৯ টি দেশ এই প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছিল। মধ্যপ্রাচ্য শান্তি আলোচনায় বহু দশক ধরেই প্রধান মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা পালন করছে যুক্তরাষ্ট্র। ট্রাম্প প্রশাসন ইসরায়েলি এবং ফিলিস্তিনিদের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে একটি নতুন শান্তি পরিকল্পনা তৈরি করছে যা ২০১৮ সালে দুই পক্ষের কাছে পেশ করা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কিন্তু প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র যেভাবে ইসরায়েলের পক্ষে কট্টর অবস্থান নিয়েছে এবং জেরুসালেমকে দেশটির রাজধানী বলে স্বীকৃতি দিয়েছে, তাই এই দেশটির মধ্যস্থতা আর মেনে নিতে পারছে না ফিলিস্তিনিরা। বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের এনিয়ে ভোটাভুটিতে যুক্তরাষ্ট্র কার্যত কূটনৈতিকভাবে একঘরে হয়ে পড়ার পর শুক্রবার (২২ ডিসেম্বর) ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস স্পষ্ট করে দিয়েছেন, শান্তি আলোচনায় তারা আর যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতা মেনে নেবেন না।

প্যারিসে ফরাসী প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রনের সঙ্গে এক সাক্ষাতের পর তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জেরুসালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া এবং মার্কিন দূতাবাস জেরুসালেমে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তের পর যুক্তরাষ্ট্র আর এই শান্তি প্রক্রিয়ায় কোন সৎ মধ্যস্থতাকারী নয়, সেটাই তিনি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রনকে জানিয়েছেন। সূত্র: বিবিসি বাংলা