বুধবার ২৪ জানুয়ারি, ২০১৮, দুপুর ১১:৫৭

ঢাকার ৯৭ শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চিঠি

Published : 2017-12-04 16:29:00
অনলাইন ডেস্ক : কোচিং বাণিজ্যে যুক্ত ও অর্থ উপার্জনের অভিযোগে ঢাকা মহানগরের স্বনামধন্য আট প্রতিষ্ঠানের ৯৭ জন শিক্ষকের বিরুদ্ধে 'শাস্তিমূলক' ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (৪ ডিসেম্বর) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠানো হয়েছে বলে কমিশনের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য জানান। এর আগে গতকাল রোববার চিঠিটি স্বাক্ষর হয়ে এসব শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে চিঠি পাঠিয়েছে দুদক।

প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য আরও জানান, এই শিক্ষকরা কোচিং বাণিজ্যে দীর্ঘদিন ধরে কোচিং বাণিজ্যে জড়িয়েছেন এবং ‘অনৈতিকভাবে’ অর্থ উপার্জন করে আসছেন। তাই তাদের বিরুদ্ধে ‘কোচিং বাণিজ্য বন্ধ নীতিমালা-২০১২’ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার পাশাপাশি কোচিং বাণিজ্য বন্ধে সরকারকে আইন প্রণয়নের উদ্যোগ নিতে বলেছে দুদক।

চিঠিতে বলা হয়, এমপিওভুক্ত চারটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৭২ জন শিক্ষক এবং সরকারি চারটি বিদ্যালয়ের ২৫ জন শিক্ষক কোচিং বাণিজ্যে যুক্ত বলে দুদক প্রমাণ পেয়েছে।

বেসরকারি স্কুলগুলোর মধ্যে আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৩৬ জন শিক্ষক, মতিঝিল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ২৪ জন, ঢাকা ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৭ জন, রাজউক স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৫ জন রয়েছেন। আর সরকারি চারটি স্কুলের মধ্যে মতিঝিল সরকারি বালক উচ্চবিদ্যালয়ের ১২ জন, মতিঝিল সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের ৪ জন, খিলগাঁও সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের ১ জন এবং ধানমন্ডি গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাইস্কুলের ৮ জন শিক্ষক রয়েছেন।