বুধবার ২৪ জানুয়ারি, ২০১৮, সকাল ১০:০৪

শেষ হলো চারদিনব্যাপী সার্ক হস্তশিল্প প্রদর্শনী ও সার্ক নৃত্যউৎসব

Published : 2017-12-03 19:36:00
অনলাইন ডেস্ক : বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও সার্ক কালচারাল সেন্টার এর পৃষ্ঠপোষকতায় গত ৩০ নভেম্বর ৩ ডিসেম্বর শুরু হয় সার্ক হস্তশিল্প প্রদর্শনী ও কর্মশালা এবং সার্ক ঐতিহ্যবাহী নৃত্য উৎসব-২০১৭।

রোববার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে উক্ত আয়োজনের সমাপনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক জনাব লিয়াকত আলী লাকী এর সভাপতিত্বে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় সংস্কৃতি মন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান নূর এমপি এবং সার্ক কালচারাল সেন্টারের পরিচালক জনাব ওয়াসানথে কতুওয়েল্লা।

আয়োজনে প্রতিদিনের ধারাবাহিকতায় বিকেলে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির উম্মুক্ত প্রাঙ্গনে অরুণ তালুকদার এর পরিচালনায় সুনামগঞ্জের শাহ আব্দুল করিমের ঐতিহ্যবাহী গান ও  ধামাইল নৃত্য পরিবেশিত হয়।

সন্ধ্যায় জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে সমাপনী আলোচনা শেষে সাংস্কৃতিক পর্বে লিয়াকত আলী লাকী এর ভাবনায় ইয়াসমিন আলীর সংগীত পরিচালনায় এবং সৈয়দা শায়লা আহমেদ এর নৃত্য পরিচালনায় সার্কভূক্ত দেশগুলো নিয়ে গানের কথায় সমবেত সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশিত হয়।

এছাড়া দীপা খন্দকারের পরিচালনায় তাকডুম তাকডুম বাজে গানের কথায় সমবেত নৃত্য, লুবনা মরিয়মের নির্দেশনায় সুইটি দাস চৌধুরী শৈল্পিক এর নৃত্য পরিচালনায় ধ্রুমেল এর পরিবেশনায় রাস নৃত্য ও পুং চলম, র‌্যাচেল এ্যাগনেস প্যারিস প্রিয়াংকা এর পরিবেশনায় পুতনাবধ গৌড়ীয় নৃত্য, কমল খালিদ এর পরিচালনায় ঢাক-ঢোল-বাঁশী বাদন এবং দেশী ও বিদেশী সকল শিল্পীদের পরিবেশনায় সমবেত নৃত্য ও সার্কভূক্ত দেশগুলোর অংশগ্রহণে পৃথক সমবেত নৃত্য পরিবেশিত হয়।

এছাড়া ১ ও ২ ডিসেম্বর জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে সন্ধ্যায় বাংলাদেশসহ ভারত, ভুটান, মালদ্বীপ ও শ্রীলংকার ঐতিহ্যবাহী নৃত্য দলের পরিবেশনায় সার্ক ঐতিহ্যবাহী নৃত্য পরিবেশিত হয় এবং একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা প্লাজায় সার্ক হস্তশিল্পের প্রদর্শনী চলে প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

সার্ক হস্তশিল্পের প্রদর্শনীতে ভুটান, মালদ্বীপ, শ্রীলংকা ও বাংলাদেশ এর শিল্পীবৃন্দ অংশগ্রহণ করছে। সার্ক হস্তশিল্প কর্মশালা পরিচালনা করেন শিল্পী কামরুজ্জামান স্বাধীন এবং সার্ক ঐতিহ্যবাহী নৃত্য কর্মশালার মূখ্য সমন্বয়ের দায়িত্ব পালন করেন বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী তামান্না রহমান।