সোমবার ২২ জানুয়ারি, ২০১৮, রাত ১০:২৮

দুই কোটি টাকার বেশি সম্পদশালীদের সারচার্জ দিতে হবে

Published : 2017-11-23 10:59:00, Updated : 2017-11-23 15:31:53

অনলাইন প্রতিবেদক : দুই কোটি টাকার অধিক সম্পদশালীদের কাছ থেকে সারচার্জ নেওয়া যাবে বলে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ । বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) সকালে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বাধানী পাঁচ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন ।  

২০১৫ সালে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ সম্পদশালীদের কাছ থেকে সারচার্জ নেওয়া সাংবিধানিক বলে রায় দেন ।হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করেন ব্যবসায়ীরা । 

আদালতে ব্যবসায়ীদের পক্ষে শুনানি করেন ফিদা এম কামাল । আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রাশেদ জাহাঙ্গীর শুভ্র । ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শুভ্র জানান, ব্যবসায়ীদের লিভ টু আপিল গ্রহণ করলেও সারচার্জ কাটা অব্যাহত থাকবে ।

২০১৫-১৬ অর্থবছরে চারটি স্তরে সারচার্জ পুনর্বিন্যস্ত করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সে অনুযায়ী, ২ থেকে ১০ কোটি টাকার মালিকদের ১০ শতাংশ, ১১ থেকে ২০ কোটি টাকার মালিকদের ১৫ শতাংশ, ২১ থেকে ৩০ কোটি টাকার মালিকদের ২০ শতাংশ এবং ৩১ কোটি টাকার বেশি সম্পদের মালিকদের আয়ের ২৫ শতাংশ হারে সারচার্জ দিতে হবে।এর আগে ২০১৫ সালে সম্পদশালীদের কাছ থেকে সারচার্জ নেওয়া সাংবিধানিক বলে রায় দিয়েছিল হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ। এই সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে সে সময় হাইকোর্টে রিট করেন ব্যবসায়ীরা।

রিটের শুনানি নিয়ে দুই কোটি টাকার অধিক সম্পদশালীদের কাছ থেকে আরোপিত করের ওপর সারচার্জ নেওয়া বৈধ বলে রায় দেন হাইকোর্ট। ওই রায়ের বিরুদ্ধেই আপিল বিভাগে আবেদন করেন ব্যবসায়ীরা।
মূলত সারচার্জ বা সম্পদ কর হচ্ছে একধরনের মাসুল। ব্যক্তির সম্পদের ভিত্তি মূল্যের ওপর এ মাসুল আদায় করা হয়। সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বিভিন্ন খাত থেকে আয় করার জন্যে সারচার্জ আরোপ করা হয়। এটি কোনো কর নয়। মূলত সম্পদের হস্তান্তর বা লেনদেন মূল্য দিয়েই হিসাব করা হয়।