রবিবার ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, সকাল ০৮:৩৩

সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে নৌবাহিনীর খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও শান্তিকালীন পদক প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

Published : 2017-11-21 19:01:00
অনলাইন ডেস্ক : মহান সশস্ত্র বাহিনী দিবস-২০১৭ উদ্যাপন উপলক্ষে নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ নৌবাহিনীর খেতাবপ্রাপ্ত ২১ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের উত্তরাধিকারীগণকে সংবর্ধনা প্রদান করেছেন।

মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) ঢাকার বনানীস্থ নৌ সদর কমপ্লেক্সে সাগরিকা হলে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নৌবাহিনীর এই সকল খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাঁদের উত্তরাধিকারীগণের হাতে এই সম্মাননা তুলে দেয়া হয়। 

উক্ত অনুষ্ঠানে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন এর পরিবারসহ পাঁচজন বীর উত্তম, সাতজন বীর বিক্রম, আটজন বীর প্রতীক মুক্তিযোদ্ধা ও তাঁদের সন্তান এবং পরিবারবর্গের সদস্যগণসহ নৌবাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ ও বিপুল সংখ্যক নৌসদস্য উপস্থিত ছিলেন।      

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন, ইআরএ-১ এর কন্যা মিসেস নূরজাহান বেগম সম্মাননা গ্রহণ করেন। এছাড়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা কমডোর আব্দুল ওয়াহেদ চৌধুরী, বিএন (অবঃ) বীর উত্তম, বীর বিক্রম; লেফটেন্যান্ট কমান্ডার মোঃ জালাল উদ্দিন, বিএন (অবঃ) বীর উত্তম ও মরহুম আফজাল মিয়া, ইআরএ-১ (অবঃ) বীর উত্তম এর স্ত্রী মিসেস মরিয়ম আফজালসহ উপস্থিত অন্যান্য খেতাবপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাঁদের উত্তরাধিকারীগণের হাতে সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়। 

পরে, নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল নিজামউদ্দিন আহমেদ নৌবাহিনীতে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি সরুপ পাঁচ জন কর্মকর্তাকে শান্তিকালীন পদক প্রদান করেন। উল্লেখ্য, এ বত্সর নৌবাহিনীর ২৩ জন কর্মকর্তা ও ৬ জন নাবিকসহ মোট ২৯ জন নৌ সদস্য এ পদক অর্জন করে।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নৌপ্রধান মুক্তিকামী বাঙালী জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা, স্বাধীনতা যুদ্ধের মহানায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্যাগকারী লাখো শহীদদের অবদানের কথা সশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করেন।

তিনি বলেন, একটি কার্যকর ও পেশাদার নৌবাহিনী গড়ে তোলার লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তরিকতা ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বর্তমান সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

ইতোমধ্যে, নৌবাহিনীতে সাবমেরিন সংযোজনের মাধ্যমে ত্রিমাত্রিক বাহিনী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সেইসাথে নৌবাহিনীকে আরও যুগোপযোগী হিসেবে গড়ে তুলতে সংযোজিত হয়েছে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক যুদ্ধজাহাজ ও আধুনিক সামরিক সরঞ্জাম। তিনি নৌবাহিনী তথা দেশমাতৃকার গৌরব সমুন্নত রাখতে সকল নৌসদস্যকে পেশাগত দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা ও দেশপ্রেমের সমন্বয়ে কাজ করার আহবান জানান।