মঙ্গলবার ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৭, রাত ০২:১২

গলাচিপায় ১৬ ঘণ্টায় পানিতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু

Published : 2017-11-21 17:07:00
অনলাইন ডেস্ক : পটুয়াখালীর গলাচিপায় ১৬ ঘণ্টার ব্যবধানে পৃথক তিন গ্রামে তিন শিশু পানিতে ডুবে মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে দুজনের বাড়ি উপজেলার রতনদী তালতলী ও ডাকুয়া ইউনিয়নে। গলাচিপা থানা সূত্র ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে, গলাচিপা উপজেলার রতনতী-তালতলী ইউনিয়নের মানিক চাঁদ গ্রামের টমটম (স্যালো ইঞ্জিন চালিত ভ্যান) চালক হানিফ ফকির মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ভাত খাওয়ার জন্য বাড়ির পাশে খালের ঘাটে হাত ধুতে যায়।

এসময় খালে ১৮ মাসের শিশুপুত্র জিসানের লাশ ভেসে থাকতে দেখে। জিসানের পরিবারের দাবি, বাবা মায়ের চোখ এড়িয়ে কোন এক সময় খালের ঘাটে আসলে পানিতে পড়ে যায়। অপর দিকে উপজেলার ডাকুয়া ইউনিয়নের ফুলখালী গ্রামের ইব্রাহীম মিয়ার ১৮ মাসের মেয়ে আফসানা মঙ্গলবার সকাল ৯টায় প্রতিবন্ধী নানীর সাথে ছিল। নানী পুকুর পাড়ে আফসানাকে বসিয়ে টিউবওয়েলে পানি আনতে যায়।

এসময় আফসানা পুকুরে পড়ে যায়। খোঁজাখুজির পর আফসানাকে পুকুর থেকে মৃত উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে রতনদী তালতলী ইউনিয়নের ছোট চৌদ্দআনী গ্রামের লিটন ফকিরের দুই বছরের শিশু পুত্র সোমবার বিকেলে সাড়ে ৪টার দিকে বাড়ির পুকুর পাড়ে খেলা করছিল। তারা পা ধোয়ার জন্য পুকুর ঘাটে গেলে পানিতে জুতা পড়ে যায়। পানি থেকে জুতা তুলতে গিয়ে আবু সালে পুকুরে ডুবে যায়। পরে তাকে মৃত্যু উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে গলাচিপা থানার এসআই জাকারিয়া জানান, পৃথক এ তিনটি ঘটনায় গলাচিপা থানায় আলাদা আলাদা তিনটি ইউডি মামলা হয়েছে।