রবিবার ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, সকাল ০৮:৩২

গুগল ম্যাপস জানাবে ঢাকার রাস্তার জ্যামের তথ্য

Published : 2017-11-11 15:24:00

অনলাইন ডেস্ক : গুগল ম্যাপস আপনাকে জানিয়ে দেবে ঢাকার রাস্তার জ্যামের তথ্য। গুগল ম্যাপ ও নেভিগেশনের সঙ্গে নতুন ফিচার হিসেবে যুক্ত হয়েছে রাস্তার জ্যামের খবর।

বৃহস্পতিবার (০৯ নভেম্বর)  বিকাল থেকে ঢাকার রাস্তার জন্য এ ফিচারটি চালু হয়। অবশ্য অনেক দেশে আগে থেকেই এ ফিচার চালু ছিল। রাস্তা খুঁজে পেতে গুগল ম্যাপসের বিকল্প কমই রয়েছে। রাস্তার পাশের একে-ওকে জিজ্ঞাস করার চেয়ে অনেকেই এখন হাতের স্মার্টফোন দেখে জেনে নিচ্ছেন গন্তব্য।

আর এখন ঢাকার রাস্তার জটলার নির্ভুল ম্যাপ দেখাতে পারার সাথে সাথে জ্যামের খবর নিশ্চই রাজধানীবাসীর জন্য আরো বড় চমক হয়ে দেখা দেবে।

সবুজ, হলুদ, লাল, কালচে লাল চার সংকেতে মাধ্যমে এ তথ্য দিচ্ছে বিশ্বের সেরা সার্চ ইঞ্জিনটি। সবুজের অর্থ রাস্তা স্বাভাবিক, হলুদ মানে কিছু গাড়ি আছে, কমলার মানে হালকা জ্যাম ও লাল মানে রাস্তায় মন্থর হয়ে দাড়িয়েছে আছে গাড়ি।

এ ফিচার ব্যবহার করে রাজধানীর মূল রাস্তাগুলোর জ্যামের অবস্থা জানতে ম্যাপের মেন্যু থেকে ট্রাফিক অপশনটি চালু করতে হবে। অপশনটি চালু থাকা অবস্থায় ডিভাইসের নোটিফিকেশনেও কিছুক্ষণ পরপর রাস্তার গাড়ি চলাচলের আপডেট দেখা যাবে। তবে ছোট রাস্তা বা অলিগলির জন্য সেবাটি এখনও চালু হয়নি।

যারা গুগল ম্যাপসে বাসা, কর্মস্থল ও অন্যান্য দৈনিক যাতায়াতের স্থান সেইভ করে রেখেছেন, তাদের সেসব যায়গায় পৌঁছাতে কতক্ষন দেরি হতে পারে তাও দেখাবে গুগল। এ সেবার ফলে হঠাৎ সৃষ্টি ট্রাফিক জ্যামে আটকে যাওয়ার আগেই পূর্ব সতর্কতা পাওয়া যাবে।

ঢাকায় যানজট পরিস্থিতির উত্তোরত্তর অবনতি ঘটছে৷ কারুর যদি একই দিনে ঢাকার উত্তরা এবং সদরঘাটে দু’টি কাজ থাকে, তাহলে তা যে কর্মঘণ্টার মধ্যে শেষ করা কোনোভাবেই সম্ভব নয়, সেটা নিশ্চিত করে বলা যায়৷ ঢাকায় এখন ট্র্যাফিক জ্যামে ঘণ্টার পর ঘণ্টা নিশ্চল অবস্থায় যানবাহন দাঁড়িয়ে থাকাটাই স্বাভাবিক।কয়েকঘণ্টা ট্র্যাফিক জ্যামে আটকে থাকাই যেন এ শহরে সাধারণ নিয়ম৷ অর্থাৎ, তেমনটা যদি না ঘটে তাহলেই তা ব্যতিক্রম এবং বিস্ময়কর৷

ঢাকা শহরের যানজটের কারণ কী এ নিয়ে বিস্তর গবেষণা হয়েছে৷ যানজট নিরসনে নেয়া হয়েছে নানা পরিকল্পনা এবং মহাপরিকল্পনা৷ এ কারণেই আজ ঢাকার কোনো সড়ক হয়ত ‘ওয়ান ওয়ে, আবার কাল হয়ে যাচ্ছে ‘টু ওয়ে'৷ আজ এই সড়কে রিক্সা চলাচল বন্ধ, কাল আবার খুলে দেয়া হচ্ছে৷