বুধবার ২২ নভেম্বর, ২০১৭, সকাল ০৭:৫৪

নিরাপদ সড়ক নির্মাণে সেতুমন্ত্রীর আহ্বান

Published : 2017-10-23 16:59:00,

অনলাইন ডেস্ক : ভবিষ্যৎ বংশধরদের জন্য নিরাপদ সড়ক নির্মাণে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, যানজট, সড়ক দুর্ঘটনা ও পরিবহণে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সমন্বিত ও পরিকল্পিত উদ্যোগ নিতে হবে।

মন্ত্রী রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উদ্যোগে প্রথমবারের মতো জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালন উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। এ বছরের প্রতিপাদ্য ‘সাবধানে চালাবো গাড়ি, নিরাপদে ফিরবো বাড়ি’।

মন্ত্রী বলেন, পরিসংখ্যানের দিকদিয়ে সড়ক দুর্ঘটনা কমে আসছে। তবে এতে আত্মতৃপ্তির কোনো সুযোগ নেই। প্রতিটি প্রাণই মূল্যবান। সড়কে আর কোনো প্রাণ অকালে ঝরে যাক এটা কারো কাম্য নয়। তিনি গাড়ি চালকদের উদ্দেশ্যে বলেন, বেপরোয়া গাড়ি চালানো যেমন দুর্ঘটনা ঘটায় তেমনি নিজের জীবনও ঝুঁকিতে থাকে।

কাদের আরো বলেন, ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক একসময় মৃত্যুফাঁদ হিসেবে পরিচিত ছিল। দুর্ঘটনাপ্রবণ স্পটসমূহ প্রশস্তকরণ ও সড়ক বিভাজক স্থাপনের ফলে এখন এ মহাসড়কে দুর্ঘটনা কমে এসেছে। সড়ক দুর্ঘটনারোধে প্রকৌশলগত সমাধানের পাশাপাশি ট্রাফিক আইন বাস্তবায়ন এবং সড়ক ব্যবহারকারীদের সচেতনতাও জরুরি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

উল্টোপথে গাড়ি না চালিয়ে আইন অনুযায়ী গাড়ি চালানোর অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, সমাজের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ ট্রাফিক আইন মেনে চললে সাধারণ মানুষও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবে। রাস্তায় চলাচলের নিয়মকানুন পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত করার ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাসমূহকে ট্রাফিক আইন বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি ও কর্মসূচি বাস্তবায়নে সজাগ থাকতে হবে।

সংসদ সদস্য মনিরুল ইসলাম, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী ইবনে আলম হাসান, বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান মো. মশিয়ার রহমান, সাবেক সচিব এমএএন ছিদ্দিক, নিরাপদ সড়ক চাই-এর চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন এবং পরিবহণ মালিক-শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।