সোমবার ২৩ অক্টোবর, ২০১৭, রাত ১১:১৮

লিঙ্গ পরিবর্তন করে চাকরি হারালেন নৌসেনা

Published : 2017-10-11 17:09:00, Count : 1199

অনলাইন ডেস্ক : ভারতীয় নৌসেনার নাবিক মণীশ গিরি লিঙ্গ পরিবর্তনের পরে নিজের নাম রেখেছেন সাবি। লম্বা চুল রাখার পাশাপাশি কাজের সময় উর্দি পরলেও অন্য সময় শাড়িই পরতেন মণীশ। সাবির যুক্তি, পুরুষ থেকে নারী হলেও তাঁর কাজেকর্মে কোথাও কোনও কমতি নেই। সব কাজ তিনি আগের মতোই করছেন। কোথাও অসুবিধা হচ্ছে না।

তবে নৌসেনার চাকরি সংক্রান্ত আইন তাকে মেনে নেয়নি। সোমবার (৯ অক্টোবর) নৌসেনার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, মণীশ গিরিকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। নৌসেনার যুক্তি, আইন অনুযায়ী কোনও মহিলাকে যুদ্ধজাহাজের নাবিক হিসেবে নিয়োগ করা যায় না। সাবি বুধবার (১১ অক্টোবর) জানিয়েছেন, নৌসেনার এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করবেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দ্বারস্থ হওয়ার ভাবনাও রয়েছে তাঁর মাথায়।

মণীশ গিরি বলেন, "আমি অন্য যে কোনো পুরুষ-নারীর মতোই ভারতের নাগরিক। সকলের মতো আমারও সমান অধিকার রয়েছে। এখনও আমি বন্দুকের ট্রিগার টিপে গুলি চালাতে পারি। তা হলে কেন আমি দেশের সেবা করতে পারব না? নিজের অধিকারের জন্য লড়াই করতে আমি সুপ্রিম কোর্টে যাব।"

অপরদিকে নৌসেনার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মণীশ গিরিকে পুরুষ হিসেবেই নিয়োগ করা হয়েছিল। ছুটিতে থাকাকালীন বেসরকারি হাসপাতাল থেকে অস্ত্রোপচার করে তিনি লিঙ্গ বদল করেন। সেখানেই নৌসেনার নিয়োগ সংক্রান্ত নিয়ম ভেঙেছেন তিনি। মণীশ তাঁর নাম বদল করলেও নৌসেনার বিবৃতিতে তাঁর উল্লেখ নেই। তাঁকে মণীশ ও পুরুষবাচক সর্বনামেই সম্বোধন করা হয়েছে। অর্থাৎ সরকারি ভাবে নৌসেনা মণীশের নতুন পরিচয়কে স্বীকৃতি দেয়নি। সূত্র: আনন্দবাজার