রবিবার ২১ জানুয়ারি, ২০১৮, রাত ০৪:৪৬

কুমিল্লার চান্দিনায় বাস দুর্ঘটনায় নিহত ৭, আহত ২৫

Published : 2017-10-02 19:55:00
মামশাদ কবীর,কুমিল্লা প্রতিনিধি: ঢাকা-চট্টগ্রাম মহসড়কের কুমিল্লার চান্দিনার নুরীতলা এলাকায় ১ অক্টোবর রোববার দুপুরে তিশা পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই ৫ জন যাত্রী নিহত ও কমপক্ষে ২৫ জন যাত্রী গুরুতর আহত হয়। এসময় আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরও ২ জনসহ মোট ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

স্থানীয় ও হাইওয়ে পুলিশ সুত্র জানায়, দেশের প্রধান ব্যস্ততম জাতীয ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চান্দিনার নুরীতলা এলাকায় ১ অক্টোবর রোববার বেলা পৌনে ১২ টায় লাকসাম থেকে ঢাকাগামী তিশা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে ৫ জন যাত্রী নিহত হয়। আহতদেও চিত্কারে এসময় পথচারী ও হাইওয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় চান্দিনা ও পাশ্ববর্তী দাউদকান্দিও গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে আরো দু’জনসহ মোট ৭ জনের মৃত্যু হয়।

আহতদের উল্লেখিত দুটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ছাড়াও কুমিল্লা মেডিকেল কলেজসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিত্সার জন্য নেওয়া হয়েছে। নিহতদেও মধ্যে ৪ জন পুরুষ, দু’জন মহিলা একটি শিশু রয়েছে। ইলিয়টগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশের এসআই মাহফুজ জানান, নিহতদের মধ্যে ৭ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন, দেবিদ্বারের খলিলপুর গ্রামের গোলাপ খান (৬০) ও তার স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৫২), একই উপজেলার বাঙ্গরী গ্রামের অহিদুল ইসলাম (২৩), কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার  যশপুর গ্রামের ওমান প্রবাস ফেরত জসিম উদ্দিন (৩৫) ও চান্দিনার বামনীখোলা গ্রামের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের শিক্ষার্থী সুজন (২২) এবং মুন্সিগঞ্জের মাওনা এলাকার মানিক মিয়ার স্ত্রী পিংকী আক্তার (২৬) ও তার দেড় বছরের শিশু সন্তান মিনহাজ।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌছে আহতদেও চিকিত্সার খোঁজখবরসহ নিহতদেও লাশ ইলিয়টগঞ্জ হাওিয়ে ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন। হাইওয়ে পুলিশ সুত্র আরও জানায় খবর পেয়ে নিহতদের পরিবারের লোকজন এসে তাদেও মরদেহ নিজ নিজ বাড়িতে নিয়ে যান। বাসটি উদ্ধার করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসা হয়েছে।