মঙ্গলবার ১৬ জানুয়ারি, ২০১৮, বিকাল ০৫:৪৩

কুমিল্লায় এইচএসসির ফল বিপর্যয় তদন্তে কমিটি, ২০১ অধ্যক্ষকে চিঠি

Published : 2017-07-25 20:38:00
অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার পর কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে উচ্চ মাধ্যমিকের ফলাফল বিপর্যয়ের কারণ খুঁজে বের করতে একটি তদন্ত কমিটি করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)। কমিটিকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ জুলাই) এক সভায় কমিটি গঠনের পাশাপাশি যেসব কলেজের ফল খারাপ হয়েছে, তাদের কাছে চিঠি পাঠানোর সিদ্ধান্তও হয়েছে বলে সংস্থাটির মহাপরিচালক ওয়াহেদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মাউশি প্রধান জানান, আমরা খুব অল্প সময়ের মধ্যে কুমিল্লার সবচেয়ে খারাপ ফলের কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত কমিটি করব। কমিটি সার্ভে করে, অনুসন্ধান করে রিপোর্ট জমা দিলে আমরা এর করণীয় ঠিক করব।

কমিটির আহ্বায়ক ও কুমিল্লা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক মো. জামাল নাছের বলেন, এরই মধ্যে কমিটি কাজ শুরু করে দিয়েছে। কুমিল্লা বোর্ডে গড় পাসের হারের চেয়ে কম পাস করেছে এমন ২০১টি কলেজের অধ্যক্ষকে ফল বিপর্যয়ের কারণ, ব্যাখ্যা ও ভবিষ্যতে ভালো করার সুপারিশ জানাতে সাত দিনের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। ওই চিঠির জবাব পাওয়ার পর তদন্ত কমিটি পর্যালোচনা করবে।

উল্লেখ্য, গত রোববার সারাদেশে এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা হয়। এই ফলাফলে উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় ১০টি শিক্ষা বোর্ডের গড় পাসের হার ৬৮ দশমিক ৯১ শতাংশ। আর কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের পাশের হার সবচেয়ে কম ৪৯ দশমিক ৫২ শতাংশ। জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা গতবারের ১৯১২ জন থেকে কমে হয়েছে ৬৭৮ জন। গতবার কুমিল্লায় পাসের হার ছিল ৬৪ শতাংশ।

ইংরেজি বিষয়ে ৩৭ দশমিক ৯৪ শতাংশ পরীক্ষার্থী ফেল করায় এ ফল বিপর্যয় ঘটছে বলে বোর্ড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।