রবিবার ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭, সকাল ০৮:৩২

ফরহাদ মজহারকে উদ্ধারের জন্য পুলিশকে ধন্যবাদ দেওয়া উচিত

টঙ্গী থানার নতুন ভবন উদ্বোধনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Published : 2017-07-05 17:11:00, Updated : 2017-07-06 10:18:41
নিজস্ব প্রতিবেদক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, কবি, লেখক ও বুদ্ধিজীবী ফরহাদ মজহারকে অক্ষত অবস্থায় উদ্ধারের জন্য পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ দেওয়া উচিত।

পুলিশের গোয়েন্দা বাহিনীর সদস্যরা সার্বক্ষণিক মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তার অবস্থান নিশ্চিত করেছে। পরে তাকে উদ্ধার করে পরিবারের কাছে তুলে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়েছে। তা সিআইডি তদন্ত করছে।

মামলার তদন্তে যাদের নাম বেরিয়ে আসবে তাদেরকে দ্রুত গ্রেফতার করা হবে। তিনি আরও বলেন, ফরহাদ মজহার কীভাবে গেলেন? কী নিয়ে বের হয়েছেন? তার সবই ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে। উদ্ধারের পর তাকে আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। একজন ম্যাজিস্ট্রেট তার জবান্দবন্দি নিয়েছেন।
আমরা আশা করি অচিরেই এর রহস্য উদঘাটন হবে।

বুধবার (৫ জুলাই) বিকালে টঙ্গী মডেল থানার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। উদ্বোধন শেষে বিকেল সাড়ে ৪টায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টঙ্গী পাইলট স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজ মাঠে মাদক ও জঙ্গি বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

গাজীপুরের কাশিমপুর নওয়াপাড়ায় বয়লার বিস্ফোরণের ঘটনায় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, ‘শিল্প-কারখানায় বয়লার স্থাপনের একটি সুনির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে। এগুলো তদারকি করার জন্য বয়লার পরিদর্শকও রয়েছেন। বয়লার স্থাপনের পর সেটির সক্ষমতা রয়েছে কিনা কিছুদিন পরপর তা যাচাই করতে হয়। গাজীপুরে বয়লা বিস্ফোরণের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে বলা যাবে এতে কারও কোন গাফলতি ছিল কিনা। তিনি আরও বলেন, যদি মালিক পক্ষের কোনও অবহেলা থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধেও আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সাংসদ, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ জাহিদ আহসান রাসেল, ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি মো. শফিকুল ইসলাম, গাজীপুর পুলিশ সুপার মো. হারুন-অর-রশীদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. গোলাম সবুর, মো. শেখ রাসেল, মো. শাখয়াত হোসেন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লা খান, সাধারন সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মো. মতিউর রহমান মতি, গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহবায়ক মো. রাসেল সরকার, যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম, জয়দেবপুর থানার ওসি আমিনুল ইসলাম, টঙ্গী মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার, সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যানিকেতন অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মো. ওয়াদুদুর রহমান, সহকারী অধ্যক্ষ মুজিবুর রহমান, গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মো. ইকবাল হোসেন পাঠান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন পলিন, প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।