বুধবার ২৪ জানুয়ারি, ২০১৮, দুপুর ১১:৫৯

ভাতিজার বদলে ছেলেকে যুবরাজ সৌদি বাদশার

Published : 2017-06-21 23:28:00
সকালের খবর ডেস্ক: ভাতিজা মোহাম্মেদ বিন নায়েফকে সরিয়ে নিজের ছেলে মোহাম্মেদ বিন সালমানকে সৌদি আরবের নতুন ক্রাউন প্রিন্স ঘোষণা করেছেন বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজ। রাজতন্ত্রের দেশ সৌদি আরবে যুবরাজই বাদশার উত্তরসূরি। গতকাল এক ফরমানের মাধ্যমে বাদশা ওই পদে পরিবর্তন আনেন বলে সৌদি প্রেস এজেন্সি (এসপিএ) জানিয়েছে। বিবিসি।
এসপিএ জানিয়েছে, সৌদি আরবের উত্তরাধিকার নির্ধারণ কমিটির ভোটাভুটিতে ৪৩ ভোটের মধ্যে ৩১ ভোট পান মোহাম্মেদ বিন সালমান। গত মঙ্গলবার মধ্যরাতে মক্কার আল সাফা প্রাসাদে উত্তরাধিকার নির্ধারণ কমিটির ওই বৈঠক হয়। ৩২ বছর বয়সী মোহাম্মেদ বিন সালমান এতদিন সৌদি আরবের ডেপুটি ক্রাউন প্রিন্স ছিলেন। ক্রাউন প্রিন্স হওয়ায় এখন থেকে তিনিই উপ-প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন।  
সৌদি আরবের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি অর্থনৈতিক ও উন্নয়ন বিষয়ক কাউন্সিলের চেয়ারম্যানের দায়িত্বও তার হাতে রয়েছে। ইয়েমেনে সামরিক অভিযানে গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করা মোহাম্মেদ বিন সালমান সৌদি রয়েল কোর্টেরও প্রধান। তিনি বাদশা সালমানের তৃতীয় স্ত্রী ফাহদা বিনতে ফালাহ বিন সুলতানের ছেলে। কিং সউদ ইউনিভার্সিটির আইনের ডিগ্রি রয়েছে তার। পদচ্যুত ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মেদ বিন নায়েফ উপ-প্রধানমন্ত্রীর পদের পাশাপাশি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বও হারিয়েছেন।
দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরবের সন্ত্রাসবিরোধী ইউনিটের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসা নায়েফকে সব দায়িত্ব থেকেই অব্যাহতি দিয়েছেন বাদশা। সৌদি বাদশার ডিক্রিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে প্রিন্স আবদুল আজিজ বিন সউদ বিন নায়েফকে।
সত্ভাই আবদুল্লাহ বিন আবদুল আজিজের মৃত্যুর পর ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে সিংহাসনে অধিষ্ঠিত হন ৮১ বছর বয়সী বাদশা সালমান। সিংহাসনে বসার কয়েক মাসের মধ্যে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে রদবদল আনেন বাদশা। তখন তিনি ভাতিজা মোহাম্মেদ বিন নায়েফকে ক্রাউন প্রিন্স করেন। ছেলে মোহাম্মদ বিন সালমানকে ডেপুটি ক্রাউন প্রিন্স করেন। ছেলেকে ক্রাউন প্রিন্স ঘোষণা করার পর সৌদি বাদশা নতুন যুবরাজের প্রতি আনুগত্য প্রকাশের জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান। এর পরপরই পদ হারানো প্রিন্স নায়েফ নতুন যুবরাজের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করেন বলে সৌদি সংবাদমাধ্যমের খবর।

 

আরও খবর