রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, সকাল ০৮:৪১

পদ্মা সেতুর দুর্নীতির ষড়যন্ত্র: তদন্ত কমিশনের বিষয়ে জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট

Published : 2017-03-20 11:11:00

অনলাইন প্রতিবেদক : পদ্মা সেতুর দুর্নীতির ষড়যন্ত্রে কারা জড়িত এবং তদন্ত কমিশন গঠন করা হয়েছে কিনা তা জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।৯ মে'র মধ্যে  রাষ্ট্রপক্ষকে এ বিষয়ে জানাতে বলা হয়েছে। সোমবার(২০ মার্চ) সকালে বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ’র হাইকোর্ট বেঞ্চ এই নির্দেশ দেন।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে ইনকোয়ারি অ্যাক্ট ১৯৬৫ (৩ ধারা) অনুসারে তদন্ত কমিটি বা কমিশন গঠনের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং দোষীদের কেন বিচারের মুখোমুখি করা হবে না- তা জানতে চেয়ে স্বতপ্রণোদিত রুল জারি করেন একই হাইকোর্ট বেঞ্চ।

দুই সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, স্বরাষ্ট্র, আইন ও যোগাযোগ সচিব এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়। এ কমিটি বা কমিশন গঠনের বিষয়ে কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে ৩০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতেও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিবকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

সোমবার রুলের জবাব ও প্রতিবেদন দিতে আট সপ্তাহের সময়ের আবেদন জানান রাষ্ট্রপক্ষ। এ আবেদনের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট ৭ মে পর্যন্ত সময় বাড়িয়ে দেন ।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ‘দৈনিক ইনকিলাব' পত্রিকায়  ইউনূসের বিচার দাবি: আওয়ামী লীগ ও সমমনা দলগুলো একাট্টা’ শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনসহ বিভিন্ন পত্রিকার সংবাদের কথা উল্লেখ করে এ রুল জারি করেন হাইকোর্ট।