বুধবার ২৪ জানুয়ারি, ২০১৮, বিকাল ০৩:৪৯
ব্রেকিং নিউজ

■  পশুখাদ্য মামলায় ফের ৫ বছরের কারাদ্ণ্ড লালুপ্রসাদের ■  আ.লীগ ৪০টির বেশি আসন পাবে না : জানালেন মোশাররফ ■  নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া নির্বাচন হবে না: হুশিয়ারি ফখরুলের ■  ২৯ জানুয়ারি ছাত্র ধর্মঘট ডেকেছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট ■  চবিতে প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্যের মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা ■  ঢাবি উপাচার্যকে হেনস্তার ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি ■  আফগানিস্তানে ‘সেভ দ্য চিলড্রেন’ কার্যালয়ে হামলা, আহত ১১ ■  ঢাবিতে অরাজকতা হতে দেওয়া হবে না: হুশিয়ারি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ■  ভিসির কার্যালয়ে গেট ভাঙ্গার বিচার হবে: কাদের ■  জয়নাব ধর্ষণ ও হত্যার মূল সন্দেহভাজন গ্রেপ্তার ■  সেনাপ্রধানের বাবা শরিফুল হকের ইন্তেকাল ■  ভেনেজুয়েলায় আগাম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ঘোষণা ■  কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বেসরকারি খাত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে : প্রধানমন্ত্রী

তুরস্কে বাংলাদেশি ছাত্রের অসাধারণ কৃতিত্ব

Published : 2017-06-17 14:25:00, Updated : 2017-06-17 16:42:41

অনলাইন প্রতিবেদক : প্রতিবছর তুরস্ক সরকারের বৃত্তি নিয়ে দেশটির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসা ছাত্র-ছাত্রীদের বর্তমান সংখ্যা একলাখ। তাদের মধ্যে যারা কৃতিত্বের সঙ্গে গ্র্যাজুয়েশন শেষ করেন তাদেরকে প্রতিবছর সংবর্ধনা দেয়া হয়। এ বছর ১১৬ টি দেশের প্রায় ৭ হাজার ৫০০ ছাত্র-ছাত্রী গ্রাজুয়েশন শেষ করে "ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক স্টুডেন্টস গ্র্যাজুয়েশন প্রোগ্রামে" অংশগ্রহণ করেন। তাদের মধ্যে সেরা ১৫ জনকে "তুর্কি বুরসলারি" (তার্কি স্কলারশিপ)'র পক্ষ থেকে অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়। এবার একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে মুমিন তুরস্কের ডেপুটি প্রাইম মিনিস্টার তুয়রুল তুর্কেশের হাত থেকে গত ১০ জুন এ অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করেন।

অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন তুরস্কের শিক্ষামন্ত্রী ইসমাত ইলমাজ ও তুরস্কে কর্মরত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদুতগণ। অ্যাওয়ার্ড বোর্ডের স্ক্রিনে একটু পর পরই ভেসে উঠছিলো বাংলাদেশের পতাকা আর মুমিনের পরিচিতি।

অনুষ্ঠান শেষে তুরস্কে কর্মরত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদুত আল্লামা সিদ্দিকী মুমিনকে তার এ অসাধারণ অর্জনের জন্য অভিনন্দন জানান ও বাংলাদেশ দুতাবাসের পক্ষ থেকে ঈদের পরে সংবর্ধণা দেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

নরসিংদির বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল আজিজ ও উম্মে কুলসুম দম্পতির মেঝো সন্তান মুমিন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগ থেকে ২০১৩ সালে রেকর্ড মার্কস নিয়ে বিএসসি সম্মান পাশ করেন। এ পরীক্ষায় তিনি সর্বোচ্চ সিজিপিএ ৩.৯৩ (৪ স্কেলে) নিয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেন। এরপর ২০১৪ সালে তুরস্ক সরকারের সরকারি বৃত্তি "তুর্কি বুরস্লারি" লাভ করে ইস্তানবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাকুয়াকালচার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে মাস্টার্স করতে আসেন এবং সর্বোচ্চ সিজিপিএ ৪.০০ (৪ স্কেলে) অর্জন করেন।