রবিবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৭, 6:06
উত্তরায় স্কুলছাত্র খুন: পলাতক নয়জনকে খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ
Published : Thursday, 12 January, 2017 at 12:00 AM, Count : 42
নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর উত্তরায় ট্রাস্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্র আদনান কবিরকে হত্যায় জড়িতদের মধ্যে নয়জনই লাপাত্তা। তবে এজাহারভুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা হল-সাদাফ জাকির, নাফিজ আলম ডন ও মেহরাব হোসাইন। এদের একজন হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।
উত্তরা পশ্চিম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রাজ্জাক বলেন, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মেহরাব হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। এছাড়া জাকিরকে টঙ্গীর কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে রয়েছে ডন। বাকিদের ধরতে অভিযান চলছে।
পুলিশ বলছে, হত্যাকাণ্ডের পর ডন ও জাকিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর মধ্যে ডনকে এক দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। ডনের কাছ থেকেই মেহরাবসহ এজাহারে অজ্ঞাত থাকা সব হামলাকারীর নাম-ঠিকানা পেয়েছে পুলিশ। তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই সোমবার রাতে মেহরাবকে গ্রেফতার করা হয়।
মেহবার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেছে, নাঈমুর রহমান অনিকের নেতৃত্বেই আদনানকে হত্যা করা হয়। কিশোর-তরুণদের এই কিলিং মিশনে
অনিকের সঙ্গে ১৮-২০ জন অংশ নেয়। তাদের প্রত্যেকের হাতেই ছিল লাঠিসোটা, রড। তবে অনিকসহ কয়েকজনের হাতে ছিল হকিস্টিক ও চাপাতি। আধিপত্য বিস্তার এবং গ্রুপিংয়ের জের ধরে স্কুলছাত্র আদনানকে হত্যা করা হয়।
আদনানকে হত্যার কিছুদিন আগে আদনানসহ তার নাইন স্টার গ্রুপের বন্ধুরা ডিসকো গ্রুপের সাদাফ জাকিরকে মারধর করে। এ ঘটনার পর থেকেই আদনান ও তার বন্ধুদের উচিত শিক্ষা দিতে প্রস্তুত ছিল ডিসকো গ্রুপের সদস্যরা। ঘটনার দিন ডিসকো গ্রুপের ১৮-২০ জন সদস্য উত্তরা ১৩ নম্বর সেক্টরের খেলার মাঠ এলাকায় অবস্থান নেয়। এ সময় অনিকের হাতে হকিস্টিক ছিল। অন্য সবার হাতেই রড, লাঠিসোটা ছিল। জাকিরের হাতে ছিল চাপাতি। হামলাকালে আদনানের বন্ধুরা দৌড়ে চলে গেলেও আদনানকে তারা ১৭ নম্বর সড়কে আটকে মারধর করে। এ সময় হকিস্টিক দিয়ে আদনানকে আঘাত করে অনিক। চাপাতি দিয়ে আঘাত করে জাকির। এছাড়াও অন্যরা লাঠিসোটা ও রড দিয়ে আদনানকে আঘাত করে। আঘাতে এক সময় আদনান নিস্তেজ হলে তারা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।
গত ৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় উত্তরার সেক্টর-১৩, রোড-১৭-এর ১৫ নম্বর বাড়ির সামনে আদনান কবিরকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় নিহতের বাবা কবির হোসেন বাদী হয়ে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় ৯ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলায় স্থানীয় এলাকার আধিপত্য এবং গ্রুপিংয়ের জের ধরে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। নিহত আদনান নাইন স্টার গ্রুপের সদস্য এবং প্রতিপক্ষ ডিসকো বয়েজ গ্রুপ উত্তরার সদস্য।


« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : কমলেশ রায়
প্রকাশক রোমো রউফ চৌধুরী কর্তৃক সকালের খবর ভবন (৮ম ও ৯ম তলা), ২৫ কমরেড মনি সিংহ সড়ক (৬৮ পুরানা পল্টন), ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত।, দৈনিক সকালের খবর পাবলিকেশনস লিমিটেড, ১৫৩/৭ তেজগাঁও বা/এ, ঢাকা-১২০৮ হতে মুদ্রিত, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক দফতর : ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক সকালের খবর, ২০১৬
ফোন : +৮৮-০২-৮১৭০৫৬৮-৭০, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৮১৭০৫৭২
ই-মেইল : Print : dsknews@shokalerkhabor.com, Online : onlinenews@shokalerkhabor.com