রবিবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৭, 6:05
নিজেকে ফুটবল ইতিহাসেই দেখছেন রোনালদো
Published : Thursday, 12 January, 2017 at 12:00 AM, Count : 25
স্পোর্টস ডেস্ক: দলীয় এবং ব্যক্তিগত সাফল্যে ২০১৬ সালটাকে শুধু স্পেশালই নয়, ক্যারিয়ারে এখন পর্যন্ত সেরা বলেই মানছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। দলীয় সাফল্যে যেমন রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ আর পর্তুগালের হয়ে প্রথমবারের মতো ইউরো চ্যাম্পিয়ন হয়ে ‘ডাবল’ জিতেছেন, তেমনি ব্যক্তিগতভাবে গত বছর ‘ডাবল’ ট্রফিই জিতেছেন ‘সিআর সেভেন।’ ফ্রেঞ্চ সকার ম্যাগাজিনের ‘ব্যালন ডি অর’ এবং মাত্রই ফিফার ‘বর্ষসেরা’ ফুটবলারের ট্রফি। গত বছর দলীয় ও ব্যক্তিগত সাফল্যে উজ্জ্বল থাকা রিয়াল তারকা এখন নিজেকে ইতিহাসের অন্যতম সেরা ফুটবলারই মনে করছেন।
চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসিকে পেছনে ফেলেই ফিফার ২০১৬ সালের বর্ষসেরার মুকুট জয় করেন রোনালদো। আসলে গত বছর সাফল্য আর রেকর্ডই তার পেছনে ছুটেছে। ফিফার ওয়েবসাইটকে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় লক্ষ্যপূরণের তৃপ্তির কথাই জানান রোনালদো। বলছিলেন-‘আমার কোনো সন্দেহ নেই যে, আমি এরই মধ্যে ফুটবল ইতিহাসের অংশ হয়ে গেছি। যখন থেকে খেলা শুরু করেছি, তখন থেকে সবসময় আমার মূল লক্ষ্য ছিল এমনটা হওয়া। শুধু খেলোয়াড় নয়, তারকা হয়ে ওঠা এবং সেরা হওয়ার জন্য প্রতিনিয়ত সংগ্রাম করে যাওয়া। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই আমি সেরা হওয়ার জন্য ধারাবাহিকভাবে পারফরম্যান্স করার চেষ্টা করেছি এবং আমি সেটা করেছি। শিরোপা ও ব্যক্তিগত পুরস্কার এবং রেকর্ডগুলোও সে কথাই বলছে। এটা দারুণ গর্বের উত্স এবং এ পর্যন্ত যেভাবে কাজ করেছি, সেভাবে তা চালিয়ে যাওয়ার জন্য এ পুরস্কার আমাকে অনুপ্রাণিত করবে।’
ফিফার ‘দ্য বেস্ট’ ট্রফি জেতা রোনালদো তার এক নম্বর প্রতিদ্বন্দ্বীকে খোঁচা মারার লোভ সামলাতে পারেননি। বলেছেন, ‘বার্সেলোনার কিছু লোক আসতে পারল না বলে খারাপ লাগছে। তবে কারণটা বোঝা যাচ্ছে। কে জানে আমিই তার কারণ কি না?’ সিআর সেভেনের মিসাইলের লক্ষ্য যে কে, তা বুঝতে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। কোথাও লিওনেল মেসির নাম করেননি, কিন্তু বুঝিয়ে দিয়েছেন জুরিখের অনুষ্ঠানে বার্সা মহাতারকার না আসাটা তিনি কোন চোখে দেখছেন। মেসির সামনে ‘দ্য বেস্ট’ হওয়ার ছবিটা যে তিনি মিস করেছেন, তা বোঝাই যাচ্ছে।
কোপা দেল রে’র ম্যাচ থাকায় বার্সেলোনা কোনো প্লেয়ারকে জুরিখে আসার অনুমতি দেয়নি। ট্র্যাডিশন অনুযায়ী তিন ফাইনালিস্টের-মানে রোনালদো, মেসি আর আন্তোনিও গ্রিজম্যানের জুরিখের অনুষ্ঠানে থাকাটা ছিল বাধ্যতামূলক। ফরাসি স্ট্রাইকার ছিলেনও। কিন্তু মেসি না আসায় সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় বলাবলি হতে থাকে, রোনালদো সেরার পুরস্কার নিচ্ছে এটা চোখের সামনে দেখতে চাননি বলেই কোপা দেল রে ম্যাচের অজুহাতে অনুষ্ঠানটা এড়িয়ে গেলেন এলএম টেন। যেটা পরে আরও সত্যতা পায়, যখন বার্সা কোচ লুইস এনরিকে জানান-খেলোয়াড়রা নিজেদের ইচ্ছাতেই জুরিখে যায়নি। এতে ক্লাবের কোনো চাপ ছিল না।



« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : কমলেশ রায়
প্রকাশক রোমো রউফ চৌধুরী কর্তৃক সকালের খবর ভবন (৮ম ও ৯ম তলা), ২৫ কমরেড মনি সিংহ সড়ক (৬৮ পুরানা পল্টন), ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত।, দৈনিক সকালের খবর পাবলিকেশনস লিমিটেড, ১৫৩/৭ তেজগাঁও বা/এ, ঢাকা-১২০৮ হতে মুদ্রিত, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক দফতর : ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক সকালের খবর, ২০১৬
ফোন : +৮৮-০২-৮১৭০৫৬৮-৭০, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৮১৭০৫৭২
ই-মেইল : Print : dsknews@shokalerkhabor.com, Online : onlinenews@shokalerkhabor.com