শনিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৭, 11:33
টেস্টেই ফিরবে হাসি-আশায় অধিনায়ক
Published : Thursday, 12 January, 2017 at 12:00 AM, Count : 36
স্পোর্টস রিপোর্টার: এই মুহূর্তে ক্রিকেটের কোন ফরম্যাটে বাংলাদেশ সবচেয়ে ভালো খেলে?
উত্তরটা সবার ভালোই জানা-ওয়ানডে ক্রিকেট। সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানও তাই বলছে।
কিন্তু সর্বশেষ দুটি ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশ হেরেছে। দেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের সঙ্গে ২-১ ব্যবধানে। আর নিউজিল্যান্ডের মাটিতে তিন ম্যাচের সিরিজে পুরো ধবল ধোলাই হয়ে। সর্বশেষ তিন সিরিজে সব মিলিয়ে বাংলাদেশ ৯টি ওয়ানডে ম্যাচের জিতেছে মাত্র তিনটিতে। হেরেছে বাকি ছয়টিতে। জানিয়ে রাখি-এই ছয়টি হারের মধ্যে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি ওয়ানডে ম্যাচও রয়েছে। নিউজিল্যান্ড সিরিজ শুরুর আগেও মূলত সংক্ষিপ্ত দুই ফরম্যাটের ক্রিকেট ওয়ানডে এবং টি-টুয়েন্টি নিয়েই ‘বড়’ স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ।
এই দুই সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে বাংলাদেশ একেবারে ট্রফি জিতে নেবে-ঠিক হয়তো এতদূরের স্বপ্ন ছিল না। কিন্তু অন্তত এই দুই ফরম্যাটে একটা বা দুটো ম্যাচ তো বাংলাদেশ জিততে পারে-সেই আশাটা ছিল প্রবলভাবে। কিন্তু তিন ওয়ানডে ও তিন টি-টুয়েন্টিতে সার্বিক অর্থে বাংলাদেশ তেমন কোনো প্রতিদ্বন্দ্বিতাই গড়তে পারেনি। হারের ব্যবধানগুলোই সেই প্রমাণ! অথচ প্রতিটি ম্যাচে সুযোগ ঠিকই এসেছিল বাংলাদেশের সামনে। কিন্তু সুযোগ শুধু এলে কী হবে?
সেটা তো কাজেও লাগাতে হয় যে! তবেই না হাসি। তবেই না জয়!
তৈরি হওয়া সেই সুযোগ কাজে লাগাতে না পারায় নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি সিরিজ বাংলাদেশ শেষ করেছে একরাশ দুঃখ গাথা ও আফসোস নিয়ে।
মুশফিক আশাবাদী-সফরের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে পাওয়া সেই দুঃখ, যন্ত্রণা বাংলাদেশ কাটিয়ে উঠবে টেস্ট সিরিজে।
এই রিপোর্ট যখন পাঠক পড়ছেন ততক্ষণে সেই মিশনের প্রথম দিন বাংলাদেশ পার করে ফেলেছে। বলা হয়ে থাকে, টেস্ট ম্যাচের প্রথম দিনটাই সম্ভাব্য ফলাফলের অনেক কিছু জানিয়ে দেয়। আর ম্যাচটা যখন বেসিন রিজার্ভের সবুজ ঘাসের উইকেটে, তখন এখানকার প্রথম দিন ম্যাচের গতিপথ নির্ধারণের অনেক বড় নিয়ামক।
বেসিন রিজার্ভ মানেই সবুজ ঘাসের উইকেট। একপাশ থেকে আসা বাতাস। সুইং। হিটিং দ্য ডেক। চিবুক ছুঁয়ে যাওয়া শাঁই শাঁই শব্দের লাল বল। উইকেটে বল পড়ার পর যে শব্দটা শোনা যায়-সেটা ব্যাটসম্যানদের বুক কাঁপিয়ে দিতে যথেষ্ট। সব মিলিয়ে বেসিন রিজার্ভ প্রায় সব সময়ই ফাস্ট বোলারদের জন্য স্বপ্নের এক উইকেট।
এই মাঠের ইতিহাস-পরিসংখ্যান বাংলাদেশের জন্য মোটেও সুখকর নয়। কি ব্যাটিং, কি বোলিং-কোনো কিছুতেই নয়।
কোনো সন্দেহ নেই ওয়ানডে এবং টি-টুয়েন্টির চেয়ে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে টেস্ট সিরিজই হবে বাংলাদেশের জন্য বড় পরীক্ষা।
মুশফিক বড় পরীক্ষায় বড় পাসের আশায়।
বাংলাদেশ অবশ্য সহজ পরীক্ষায় তেমন ভালো কিছু করতে পারে না। কঠিন পরীক্ষায় ভালো ফল করে।
উদাহরণ খুঁজছেন?
ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বশেষ ক্রিকেট সিরিজেই তো রয়েছে সেই প্রমাণ। ইংল্যান্ডের সঙ্গে ওয়ানডে সিরিজকেই মূলত পাখির চোখ করেছিল বাংলাদেশ। ইংল্যান্ডও অকপটে স্বীকার করে, দেশের মাটিতে সেই ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশই ফেভারিট। কিন্তু প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়লেও সেই ওয়ানডে সিরিজ বাংলাদেশ হেরে যায়। এরপর দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে হট ফেভারিট ছিল ইংল্যান্ড। সেই টেস্ট সিরিজে প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ প্রায় জিতেই গিয়েছিল। শেষ দিনে এসে ২২ রানে ম্যাচ জিতে নেয় ইংল্যান্ড। কিন্তু ঢাকায় সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়ায়। দারুণ ক্রিকেট উপহার দিয়ে ইংল্যান্ডকে হারায় বড় ব্যবধানে। অথচ প্রায় ১৪ মাস পর টেস্ট সিরিজে খেলতে নামা বাংলাদেশকে তেমন গনায়ও ধরা হয়নি।
এবারও হোক তেমন কিছু!
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচেই হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে লম্বা সময়ের জন্য বিশ্রামে যেতে হয় মুশফিককে। সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের আর কোনো ম্যাচেই খেলতে পারেননি তিনি। ফিরেছেন টেস্ট সিরিজে। ড্রেসিং রুম থেকে বসে দেখা ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টির ব্যর্থতা বিশ্লেষণে মুশফিকের ব্যাখ্যাটা এমন-‘যে উইকেটগুলো ছিল তাতে আমাদের ব্যাটসম্যানরা আরেকটু ডেডিকেশন দেখালে আমরা আরও ভালো কিছু অর্জন করতে পারতাম। তামিম, সাকিব, ইমরুল, সৌম্য, রিয়াদ ভাই সবার জন্যই বড় সুযোগ ছিল। তবে এখন হতাশ হয়ে বসে না থেকে আমরা যেন পরের সুযোগটা নিতে পারি, সেই চেষ্টা করতে হবে।’
ব্যাটসম্যানরা পারবেন এবার সেই সুযোগটা নিতে? বেসিন রিজার্ভে ব্যাটসম্যানদের দিকে তাকিয়ে দলের পেসাররাও। স্কোর বোর্ডে বলার মতো সঞ্চয় না থাকলে বোলাররাও কীভাবে বারুদ জ্বালাবেন?



« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : কমলেশ রায়
প্রকাশক রোমো রউফ চৌধুরী কর্তৃক সকালের খবর ভবন (৮ম ও ৯ম তলা), ২৫ কমরেড মনি সিংহ সড়ক (৬৮ পুরানা পল্টন), ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত।, দৈনিক সকালের খবর পাবলিকেশনস লিমিটেড, ১৫৩/৭ তেজগাঁও বা/এ, ঢাকা-১২০৮ হতে মুদ্রিত, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক দফতর : ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক সকালের খবর, ২০১৬
ফোন : +৮৮-০২-৮১৭০৫৬৮-৭০, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৮১৭০৫৭২
ই-মেইল : Print : dsknews@shokalerkhabor.com, Online : onlinenews@shokalerkhabor.com