শনিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০১৭, 11:34
সংযোগ সড়ক চালু হওয়ায় উৎফুল্ল দক্ষিণাঞ্চলবাসী
Published : Tuesday, 10 January, 2017 at 11:42 PM, Update: 10.01.2017 11:44:05 PM, Count : 244
শিব শংকর রবিদাস, শিবচর: হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত পদ্মা সেতুর চার লেন সংযোগ সড়ক চালুর ফলে উত্ফুল্ল দক্ষিণাঞ্চলবাসী। নৌরুটের দূরত্ব কমায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে তারা। মাদারীপুরের শিবচরের পাঁচ্চর থেকে কাঁঠালবাড়ী পর্যন্ত এই সড়কটি এ অঞ্চলের মানুষের আশার আলোর ঝিলিক। নির্ধারিত সময়ের আগেই সংযোগ সড়কটি চালু হওয়ায় ২০১৮ সালেই মূল সেতু বাস্তবায়নের আশা করছে এলাকার বাসিন্দারা।
এদিকে আগামী ১৫ জানুয়ারি বহুল পরিচিত কাওড়াকান্দি ঘাট কাঁঠালবাড়ীতে স্থানান্তরের লক্ষ্যেই অ্যাপ্রোচ সড়কটি উদ্বোধন হওয়ায় নৌরুটের দূরত্ব ও জ্বালানি ব্যয়ও কমবে বলে আশা করা হচ্ছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, পদ্মা সেতুর সঙ্গেই ২০১৩ সালের ৭ অক্টোবর ১ হাজার ৯৭ কোটি টাকা ব্যয়ে জাজিরা-শিবচর অংশের অ্যাপোচ কাজ শুরু হয়। কাজটি তত্ত্বাবধান করে সেনাবাহিনী। সম্প্রতি পদ্মা সেতুর নদীশাসন বাঁধের জন্য কাওড়াকান্দি ঘাট কাঁঠালবাড়ীতে স্থানান্তরের প্রক্রিয়া শুরু হয়। সে কারণে কাঁঠালবাড়ীতে টার্মিনাল, ফেরি, লঞ্চ, পন্টুন নির্মাণ শেষে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। এরই অংশ হিসেবে পাঁচ্চর মোড় থেকে কাঁঠালবাড়ী পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৮ কিলোমিটার নির্মাণ হওয়া পদ্মা সেতুর চার লেন সড়কটি গত বুধবার খুলে দেওয়া হয়। উদ্বোধনকালে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরও সড়কটি চালুর সার্থকতা তুলে ধরেন।
সড়কটি চালুর পর এখন কাওড়াকান্দি ঘাট কাঁঠালবাড়ীতে স্থানান্তরের বিষয়টি সময়ের ব্যাপার মাত্র। আগামী ১৫ জানুয়ারি কাঁঠালবাড়ী ঘাটটি উদ্বোধনের কথা রয়েছে। এ ঘাটটি চালু হলে নৌরুটের দূরত্ব কমার সঙ্গে সঙ্গে নৌযানে জ্বালানি ব্যয় ও পারাপারের ভাড়াও কমবে বলে আশা দক্ষিণাঞ্চলবাসীর। অন্যদিকে সড়কটি নির্ধারিত সময়ের আগেই চালু হওয়ায় পদ্মা সেতু নির্ধারিত ২০১৮ সালেই চালু হবে বলে আশার সঞ্চার আরও শক্তিশালী হয়েছে।
স্থানীয় বাসিন্দা মোহাম্মদ আলী বলেন, পদ্মা সেতুর অ্যাপ্রোচ সড়কটি চালু হল। এখন কাঁঠালবাড়ী ঘাটটি চালু করা হলে ঢাকা পৌঁছতে আমাদের খুব বেশি সময় লাগবে না। নৌপথের দূরত্ব প্রায় ৪০ মিনিট কমে যাবে।
আরেক বাসিন্দা এমরান হোসেন বলেন, নির্ধারিত সময়ের আগেই সরকার অ্যাপ্রোচ সড়কটি খুলে দিয়েছে, এতে আমরা খুশি। আমরা চাই পদ্মা সেতুও যেন সরকার নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই শেষ করতে পারে।
পদ্মা সেতু জাজিরা-শিবচর অ্যাপ্রোচ সড়কের নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ রজব আলী জানান, এখন পর্যন্ত প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি ৮৬ ভাগ। সার্বিক কাজ ৪০ ভাগ শেষ হয়েছে। নদীশাসনের কাজও চলমান। আশা করি খুব শিগগিরই প্রকল্পের সম্পূর্ণ কাজ শেষ হয়ে যাবে। আর ফেরিঘাট স্থানান্তরও কয়েকদিনের মধ্যেই হবে।



« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : কমলেশ রায়
প্রকাশক রোমো রউফ চৌধুরী কর্তৃক সকালের খবর ভবন (৮ম ও ৯ম তলা), ২৫ কমরেড মনি সিংহ সড়ক (৬৮ পুরানা পল্টন), ঢাকা-১০০০ হতে প্রকাশিত।, দৈনিক সকালের খবর পাবলিকেশনস লিমিটেড, ১৫৩/৭ তেজগাঁও বা/এ, ঢাকা-১২০৮ হতে মুদ্রিত, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক দফতর : ৩৮৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক সকালের খবর, ২০১৬
ফোন : +৮৮-০২-৮১৭০৫৬৮-৭০, ফ্যাক্স : +৮৮-০২-৮১৭০৫৭২
ই-মেইল : Print : dsknews@shokalerkhabor.com, Online : onlinenews@shokalerkhabor.com